চকরিয়ায় নিখোঁজ ব্যক্তির লাশ মিলল মরিচ খেতে

dead-lash-udhar.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া(২৬ এপ্রিল) :: চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের পূর্বনুনাছড়ির যুবকের লাশ পাওয়া গেছে পার্বত্য জেলা বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের সোনাইছড়ি মরিচ খেতে।

বাগানের গাছ কাটার বিরোধ নিয়ে প্রতিপক্ষের ধাওয়ায় নিখোঁজ হওয়ার ১১ঘন্টা পর বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার হয়।

মারা যাওয়া ব্যক্তি জিয়াবুল করিম (৩৫) হারবাং পূর্ব নুনাছড়ির আবদুল মান্নানের ছেলে।

স্ত্রী দিলতাজ বেগম ও ছোট ভাই সাহেদ দাবী করেন, বাগানের গাছ কাটার বিরোধ নিয়ে স্থানীয় আজিজদের সাথে রিরোধ শুরু হয় জিয়াবুলের।

এর জের ধরে বৃহস্পতিবার ভোররাত দেড়টার দিকে হারবাংস্থ বাড়িতে গিয়ে জিয়াবুল করিমকে দা-কিরিচ নিয়ে ধাওয়া করে আজিজসহ কয়েকজন।

ওই সময়ের পর থেকে নিখোঁজ থাকে আজিজ। সকাল ১১টার দিকে পথচারী থেকে খবর পাই লামার ফাইতং ইউনিয়নের সোনাইছড়িস্থ নিজ মরিচ খেতে জিয়াবুলের মরদেহ পড়ে রয়েছে। তার মুখে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

লামা থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন মৃত যুবকের আত্মিয়দের উদ্বৃতি দিয়ে বলেন, বাগানের গাছ বিক্রি নিয়ে মায়ের সাথে অভিমান করে জিয়াবুল বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। তার শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

তবুও মরদেহ ময়নাতদন্ত করতে বান্দরবান সদর হাসপাতার মর্গে পাঠানো হয়েছে। চিকিৎসকের প্রতিবেদনে হত্যার আলামত পেলে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে। আপাতত থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

Share this post

PinIt
scroll to top