ইতালিয়ান সিরি-এ লিগে জমে উঠেছে জুভেন্টাস ও ন্যাপোলির শিরোপা লড়াই

serie-a.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(২৮ এপ্রিল) :: ইতালিয়ান সিরি-এ লিগে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস ও ন্যাপোলির মধ্যে ব্যবধান মাত্র ১ পয়েন্টের। এ মুহূর্তে পা ফসকালেই বিপদ। এমন বাস্তবতায়  শনিবার মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ইন্টার মিলানের মাঠ স্যান সিরোয় খেলবে জুভেন্টাস।

টানা সপ্তম স্কুদেত্তো জয়ের আশা বাঁচিয়ে রাখতে এ ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই তুরিনের ‘ওল্ড লেডি’দের।

মাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রির দল হারলে ১৯৮৭ ও ১৯৯০ সালের পর তৃতীয় লিগ শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা জেগে উঠবে ন্যাপোলির। মাউরিজিও সারির দলটি আগামীকাল খেলবে ফিওরেন্টিনার মাঠে।

গত সপ্তাহে জুভেন্টাসের মাঠ থেকে ১-০ গোলের জয় তুলে নিয়ে লিগ শিরোপার রেস জমিয়ে তুলেছে ন্যাপোলি। এতে দুই দলের মধ্যে পয়েন্ট ব্যবধান চার থেকে কমে এখন মাত্র এক। ৩৪ ম্যাচ শেষে জুভেন্টাসের পয়েন্ট ৮৫, সমান ম্যাচে ন্যাপোলির ৮৪। দুই দলই চলতি মৌসুমে আর মাত্র চারটি ম্যাচ খেলবে, তাতেই মীমাংসা হবে শিরোপার।

টানা ছয়বারের চ্যাম্পিয়নরা খেলা বাকি ইন্টার মিলান, বোলোনা, রোমা ও ভেরোনার বিপক্ষে। ন্যাপোলি খেলবে ফিওরেন্টিনা, তুরিনো, সাম্পদোরিয়া ও ক্রোটোনের বিপক্ষে।

ন্যাপোলির কাছে হারের পর জুভেন্টাসের ড্রেসিংরুমে ঝগড়াঝাঁটি ও বিশৃঙ্খলার খবর এসেছে মিডিয়ায়, যদিও এমন খবরে ক্ষুব্ধ জুভেন্টাস অধিনায়ক জিয়ানলুইজি বুফন। এমন কোনো কিছুই ঘটেনি বলে দাবি তার।

যদিও বুফনের সতীর্থ আন্দ্রেয়া বারজালি স্বীকার করেন, পরিবেশ কিছুটা উত্তপ্ত। তাদের সংকট আরেকটু বাড়িয়েছে গিওর্গিও কিয়েল্লিনির হ্যামস্ট্রিং চোট। বারজালির কথায়, ‘হয়তো এটা পরিবেশকে কিছুটা অস্থিতিশীল করে তুলেছে, কারণ সাম্প্রতিক বছরগুলোয় সৌভাগ্যবশত আমরাই জিতেছি এবং খারাপ সময় খুব কমই পার করেছি।

আমার মনে হয়, এটাই কিছুটা উত্তেজনা তৈরি করেছে। হারের পর খানিকটা তিক্ততাও তৈরি হয়। এখন সবকিছু আমাদেরই হাতে। লক্ষ্য পূরণ করতে হলে এখন জিততে হবে আমাদের।’

ইন্টারের বিপক্ষে কঠিন পরীক্ষাই দিতে হবে জুভেন্টাসকে। টানা দুই জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ফেরার আশা জাগিয়ে তুলেছে ইন্টার। স্পালেত্তির দল ৩৪ ম্যাচে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলে পঞ্চম। চতুর্থ ও তৃতীয় দল লািসও ও রোমার সঙ্গে তাদের পয়েন্ট ব্যবধান এক। গত ডিসেম্বরে তুরিনে জুভেন্টাসের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে ইন্টার। এবার ঘরের মাঠে জয়ের চ্যালেঞ্জ। ইন্টার জিতলে যে জেতা হবে ন্যাপোলিরও!

এএফপি

Share this post

PinIt
scroll to top