কক্সবাজারে শীঘ্রই ভিডিও এডিটিংয়ে ট্রেনিং এর ব্যবস্থা করা হবে : পিআইবি মহাপরিচালক

pib-traning-27th.jpg

কক্সবাংলা রিপোর্ট(২৭ এপ্রিল) :: কক্সবাজারে পিআইবি’র তিন দিনব্যাপী ফটোসাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট এর আয়োজনে সার্কিট হাউজে বুধবার সকাল ১০ টায় শুরু হয়। আর শুক্রবার বিকাল তিনটায় সনদ বিতরণের মাধ্যমে শেষ হয় এই প্রশিক্ষণ কর্মশালা।তৃতীয় দিনের প্রশিক্ষণ প্রদান করেন প্রথম আলোর সাবেক ফটোগ্রাফার শাহাদাত পারভেজ।

শুক্রবার সমাপন অনুষ্ঠানে কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিআইবি’র মহাপরিচালক শাহ আলমগীর।

অনুষ্ঠানে এসএ টিভির স্টাফ রিপোর্টার আহসান সুমন এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জাহেদ সরওয়ার সোহেল ও পিআইবি’র কোর্স সমন্বয়কারি তানিয়া পারভীন।

সমাপন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের চৌধুরী পিআইবি’র প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন,আমরা অনেক সৌভাগ্য যে,পিআইবি আমাদের আহব্বানে সারা দিয়ে কক্সবাজারের জন্য এ পর্যন্ত ৫টি বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্ষ করেছে। এর মধ্যে কক্সবাজারে ৩টি এবং ঢাকায় ২টি কোর্ষ করেছে। এ জন্য তিনি পিআইবি’র মহাপরিচালকের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান।

তিনি আরও বলেন,কক্সবাজার জাতীয় এবং আন্তর্জাতিকভাবে অনেক গুরত্বপূর্ণ স্থান। প্রায় প্রতিদিন কক্সবাজারের ছবি এবং সংবাদ ছাপা হয়। রোহিঙ্গাদের নিয়ে কক্সবাজারের অনেক সাংবাদিকের তোলা ছবি পুলিৎজার পাওয়ার মত যোগ্য ছিল। কিন্তু সঠিক যোগাযোগের অভাবে তা হয়নি। তাই এ প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আগামীতে এ প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহনের সুযোগ হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহা পরিচালক শাহ আলমগীর বলেন,১৯৭৬ সালে প্রতিষ্ঠিত পিআইবি’র মত বড় প্রতিষ্ঠান দক্ষিণ এশিয়ায় আর নেই।খুব শীঘ্রই এর আইন কাঠামো তৈরী হবে এবং চট্রগ্রমে পিআইবি’র প্রথম শাখা স্থাপন করা হবে।

কোর্সটি সময় অনুয়ায়ী সম্পন্ন করায় সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন,খুব শীঘ্রই কক্সবাজারে ভিডিও জার্নালিস্ট এবং ভিডিও এডিটিংয়ের উপর ট্রেনিং এর ব্যবস্থা করা হবে।

এসময় তিনি সাংবাদিকতার পেশার অপমর্যাদা করা যাবে না জানিয়ে আরও বলেন,কিছু সাংবাদিকের কারনে পুরো সাংবাদিক সমাজকে তাদের অপকর্মের ভাগ বহন করতে হয়। যারা এ কাজ করে তাদের রুখে দেয়ার সময় এসেছে। তাই সাংবাদিকতায় অবশ্যই শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকতে হবে। এজন্য তিনি সাংবাদিক এবং ট্রেড ইউনিয়ন থেকে সোচ্ছার হওয়ার আহব্বান জানান।

উল্লেখ্য কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সহযোগীতায় তিনব্যাপী ফটোসাংবাদিকতায় প্রশিক্ষণ কর্মশালায় ইলেক্ট্রনিক, প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ার ৩৫ জন সাংবাদিক ও ক্যামেরা পার্সন অংশ গ্রহন করেন।

 

 

Share this post

PinIt
scroll to top