টেকনাফে শরণার্থী ক্যাম্পে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে শিশু নিহত : মহিষের হামলায় আহত ২

dead-child-coxbangla.jpg

হুমায়ুন রশীদ,টেকনাফ(১ মে) :: ককসবাজারের টেকনাফে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে পৃথক দুঘর্টনায় এক শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু ও অপর দুই শিশু আহত হয়েছে।

জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যায় কালবৈশাখীর ঝড়ো হাওয়া চলাকালে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পের সি-ব্লকের এমআরসি নং-৬১৪০৪, শেড নং-১০৩৫/১০ এর বাসিন্দা শামসুল আলমের ছেলে মোঃ রাকিব (১২) প্রতিদিনের ন্যায় ই-ব্লকের দোলন চাম্পা নামে একটি স্কুলের টিনের ছাউনির উপর খেলা করতে যায়।

এ সময় ঝড়ো বাতাসে ছাউনির উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়া বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে পুরো ছাউনি বিদ্যুতায়িত হয়। ঐ শিশু টিনের ছাউনিতে পা দেওয়ার সাথে সাথে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়। তাকে দ্রুত উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্প পুলিশের আইসি মোঃ কবির হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এদিকে উক্ত ঘটনার পর পরই দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় শবে-বরাতের ফাতেহায় জবাই করার জন্য আনা একটি পাগলা স্বভাবের মহিষ পাহাড় থেকে ঘাস খেয়ে ফিরছিল। এসময় ডি-ব্লকের মাঠে খেলারত একদল শিশু মহিষটিকে ধাওয়া করলে দ্রুত দৌড়ে যাওয়ার সময় কাউকে শিং আবার কাউকে লাথি মেরে চলে যায়।

এসময় ডি-ব্লকের মোঃ ছালেহ এর ছেলে মোঃ আব্দুল্লাহ ও রফিক নামে অপর ২ শিশু রক্তাক্ত ও গুরুতর আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। এদের মধ্যে মুমূর্ষ আব্দুল্লাহকে উন্নত চিকিৎসার জন্য আশঙ্কাজনক অবস্থায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়।

নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্প চেয়ারম্যান আব্দুন নবী বলেন, ছেলেদের ধাওয়ায় ছুটে চলা পাগলা মহিষের হামলায় দুই শিশু গুরুতর আহত হয়।

Share this post

PinIt
scroll to top