izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

চকরিয়ার সাহারবিল বিএমএস স্কুলের শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

Chakaria-Pc-03-05-2018.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া(৩ মে) :: চকরিয়া উপজেলার সাহারবিল বিএমএস স্কুলের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষিকা সেতারা বেগমের সাথে অশালীন আচরণ ও শাররীকভাবে নাজেহাল এবং প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামকে হয়রানী করার জেরে বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেছে শিক্ষার্থীরা।

এ ঘটনায় জড়িত জুনাইদুল হককে গ্রেফতার পুর্বক তাঁর শাস্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার দুপুরে বিদ্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকাবাসী।

বিদ্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন শেষে বিএমএস স্কুলের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মাতামুহুরী থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বিদ্যালয় কমিটির সভাপতি ও সাহারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মহসিন বাবুল।

প্রতিবাদ সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন শিক্ষানুরাগী মনজুর আলম, সদস্য আইয়ুব খান, সদস্য মো: খলিল, সদস্য মকছুদুল হক, সহকারী প্রধান শিক্ষক নিরুপম দাশ, শিক্ষক সরওয়ার আলম, রেজাউল করিম সিকদার, কাইছারুল হক সিকদার, সেতারা বেগম, মৌলভী আবু বক্কর ছিদ্দিকী, রোজিনা আক্তার, মো: ইলিয়াছ, ইদ্রিছ, শামীমা আক্তার, দিলরুবা খানম এমিলি সহ শিক্ষক ও অভিভাবকরা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, অভিযুক্ত জুনাইদুল হক বিএমএস স্কুলের সুনাম ও ঐতিহ্য ধ্বংস করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। সে প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নানাভাবে অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র চালিয়ে যা”েছ। স্কুলের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিভিন্ন বিভিন্ন অভিযোগ এনেও জেলা শিক্ষা অফিসার কর্তৃক তদন্তে তা মিথ্যা প্রমানিত হয়েছে। এরপরও জুনাইদের ষড়যন্ত্র বন্ধ হয়নি।

কয়েকদিন আগে বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষিকা সেতারা বেগমকে স্কুলে এসে অশালীন ব্যবহার ও নাজেহাল করে এবং অন্যান্য শিক্ষককে প্রাণনাশের হুমকী ধমকী দিয়ে যা”েছন।

স্কুল ও শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র অব্যাহত রাখায় তাকে গ্রেফতার ও শাস্তির দাবী জানিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সরকারি গুরুত্বপূর্ন বিভিন্ন দপ্তরে স্বারকলিপি দেওয়া হয়েছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri