রাডার ফাঁকি দিতে সক্ষম ইসরায়েলি এফ-৩৫ স্টেলথ জঙ্গিবিমান !

f35-isreal.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(২৪ মে) :: ইসরায়েলের দাবি, সিরিয়ায় দুটি আক্রমণে অত্যাধুনিক এফ-৩৫ স্টেলথ জঙ্গিবিমান ব্যবহার করেছে তারা।

এটি বিশ্বের সবচেয়ে আধুনিক ও ব্যয়বহুল জঙ্গিবিমান। লকহিড মার্টিন কম্পানির তৈরি বিমানটিতে আছে স্টেলথ প্রযুক্তি।

এই প্রযুক্তির কারণে শত্রুপক্ষের রাডারে বিমানটির অস্তিত্ব ধরা পড়বে না। শুধু তাই নয়, শত্রুপক্ষের বিমানের চোখে পড়ার আগেই সে নিজেই তাকে দেখতে পাবে।

ইসরায়েলি বিমানবাহিনীর প্রধান জেনারেল আমিকাম নরকিন এ তথ্য প্রকাশ করেছেন। আর এরপর থেকেই এই বিমান নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা।

জানা গেছে, বিমানটি যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি। যার দাম প্রায় ১০ কোটি ডলার।

এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান এই প্রথম কোনো কমব্যাট অপারেশনে ব্যবহৃত হলো। বিমানটি অতি ব্যয়বহুল হওয়াতে যুক্তরাষ্ট্রেই এর সমালোচনা হয়েছে।

বিমানটির পাইলটের হেলমেটে বসানো আছে ডিসপ্লে সিস্টেম যাতে অন্যদিকে মুখ করে থাকা অবস্থায়ও শত্রু বিমানের দিকে গুলি করা যাবে।

শত্রু লক্ষ্যবস্তুর গতিবিধি চিহ্নিত করতে পারবেন পাইলট। পাইলট শত্রু রাডার অকার্যকর করে দিতে পারবেন এবং আক্রমণ প্রতিহত করতে পারবেন।

এ বিষয়ে জেনারেল নরকিন বলেছেন, এ বিমান একটি ‘গেম চেঞ্জার’। বিমানযুদ্ধ আর আগের মতো থাকবে না।

তিনি বলেন, আমরা এ বিমান পুরো মধ্যপ্রাচ্যের আকাশে উড়িয়েছি। ইতিমধ্যে দুটি লক্ষ্যবস্তুতে আক্রমণও চালিয়েছি আমরা।

সূত্র : বিবিসি

Share this post

PinIt
scroll to top