মাটির নীচে মিলল ৪,০০০ বছরের পুরনো রথের ধ্বংসাবশেষ

rath1723.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৭ জুন) :: ভারতের উত্তর প্রদেশের বাগপতে প্রত্নতাত্বিক খননে মিলল ৪০০০ বছরের পুরনো রথ, শিল্পকর্ম। তাম্রযুগের এই সমস্ত সামগ্রী প্রাচীন ভারতের ইতিহাসে নতুনভাবে আলোকপাত করবে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

ভারতীয় প্রত্নতাত্বিক সর্বেক্ষণের তরফে জানানো হয়েছে,  খ্রীষ্টপূর্ব ২০০০ সালে মেসোপটেমিয়ার বাসিন্দারা যে রথ, তলোয়ার, হেলমেট ইত্যাদি ব্যবহার করত, সে ব্যাপারে আমরা নিশ্চিত। এই প্রথম ৪০০০ বছরের পুরনো সামগ্রীর সন্ধান পেলেন প্রত্নতাত্বিকরা।

মার্চ থেকে তিন মাস ধরে খনন চালানোর পর খোঁজ মিলেছে কফিন, ঘোড়ার গাড়ি, তলোয়ার, চিরুনি ও অলঙ্কারের। উদ্ধার হওয়া সমস্ত সামগ্রীই খ্রীষ্টপূর্ব ১৮০০-২০০০ শতাব্দীর বলে দাবি প্রত্নতাত্বিকদের।

উদ্ধার হওয়া ঘোড়ার গাড়ির সঙ্গে টিভিতে রামায়ন-মহাভারতের মতো ধারাবাহিকে দেখানো রথের অনেক মিল রয়েছে বলে দাবি তাঁদের।

এছাড়া সাইকেলের মতো একটি ২ চাকার গাড়ির খোঁজ মিলেছে। তবে তাতে কোনও প্যাডেল ছিল না। একটি পাটাতনের দু’পাশে লাগানো ছিল ২টি চাকা।

নতুন এই সন্ধানকে যুগান্তকারী বলে অখ্যা দিচ্ছেন ভারতীয় প্রত্নতাত্বিক সর্বেক্ষণের গবেষকরা। কারণ, এই প্রথম সম্পূর্ণ একটি রথের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার হল। মিলেছে তামার আস্তরণযুক্ত পৌরাণিক মূর্তি।

যা দেখে গবেষকদের ধারণ, এই ধ্বংসাবশেষ ছিল কোনও সম্রাটের সমাধিস্থল।

Share this post

PinIt
scroll to top