কক্সবাজার স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের প্রীতিম্যাচে আর্জেন্টিনাকে ২-০ গোলে হারাল ব্রাজিল সমর্থক দল

cdg-f.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি(২৯ জুন) :: বিশ্ব ফুটবলে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল বরাবরই চির প্রতিদ্বন্দ্বিতায় থাকে। তাই বিশ্বজুড়ে এই এই দু’দলের সমর্থকদের মধ্যেও থাকে পক্ষ-বিপক্ষের উন্মাদনা। এই উন্মদনা নিয়ে প্রীতি ম্যাচ নিয়ে মাঠে নেমেছিল কক্সবাজারের আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল সমর্থকরা।

শুক্রবার বিকালে কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে দু’দল দুর্দান্ত খেললেও হেরে গেছে আর্জেন্টিনা সমর্থক দল। আর ২-০ গোলে এগিয়ে জয় ঘরে তুলেছে ব্রাজিল সমর্থক দল।

খেলার ফলাফল যাই হোক, শেষ পর্যন্ত দু’দলের খেলোয়াড়রা দারুণ খেলেছেন এবং সমর্থকেরাও দারুণ আনন্দ-উচ্ছ্বাসে মেতে ছিলেন।

সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহেরের সভাপতিত্বে সাংবাদিকদের এই প্রীতিম্যাচের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান ছিলেন ক্রীড়া সচিব মাসুদ করিম।

বিশেষ অতিথি ছিলেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান, সহ-সভাপতি রেজাউল করিম, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক অনুপ বড়–য়া অপু সাংবাদিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সদস্য সিনিয়র সাংবাদিক এড, আয়াছুর রহমান ও মোহাম্মদ মুজিবুল ইসলাম, প্রথম আলোর কক্সবাজার অফিস প্রধান আবদুল কুদ্দুস রানা।

অতিথিরা তাদের বক্তব্যে বলেন, এই প্রীতি ফুবল ম্যাচে জয়-পরাজয়টা বড় বিষয় নয়। এই ম্যাচটি সাংবাদিকদের মধ্যে ভাতৃত্ব ও সৌহার্দের মেলবন্ধনকে আরো শক্ত করবে। একই সাথে এই ম্যাচটি তাদের মধ্যে এক অন্য রকম আনন্দের শিহরণ জাগানিয়া হয়ে থাকবে। তাই ভবিষ্যতেও এই ধরণের বিনোদনমুলক কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে হবে।

এদিকে খেলায় ব্রাজিলের পক্ষে প্রথমার্ধে প্রথম গোল করেন অধিনায়ক ওমর ফারুক হিরু। কিন্তু দুর্দান্ত খেলে প্রাণপণ চেষ্টা করেও প্রথমার্ধে তার শোধ করতে পারেনি আর্জেটিনা সমর্থক দল। কিন্তু ‘ভাগ্যের নির্মম পরিহাস’ দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আরেকটি গোল দেয় ব্রাজিলের ফরোয়ার্ড আজিজ রাসেল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চেষ্টা করেও আর গোল শোধ করতে পারেনি আর্জেন্টিনা সমর্থক দল। ব্রাজিলেও প্রতিরোধের মুখে আর কোনো গোল করতে পারেনি।

খেলায় বিজয়ী ব্রাজিল সমর্থক দলের পক্ষে দুর্দান্ত খেলেন বিপ্লব কান্তি দে সুরেশ, এমআর মাহবুব, ওমর ফারুক হিরু, মুহিবুল্লাহ মুহিব। রক্ষণভাগে চমৎকারভাবে গোল রক্ষা করেন আবদুল আজিজ, সরওয়ার আজম মানিক ও সাইফুল ইসলাম।

অন্যদিকে আর্জেন্টিনা সমর্থক দলের পক্ষে ভালো খেলেছেন আইয়ুবুল ইসলাম, মো. তারেক, শাহেদ মিজান। তবে দর্শকদের বলতে শোনা যায়, আর্জেন্টিনা সমর্থক দলের রক্ষণভাগ অপেক্ষাকৃত দুর্বল হওয়ায় গোল হয়েছে।

খেলায় রেফারির দায়িত্ব পালন করেন সালেক সোহেল। সহকারী রেফারি ছিলেন মো সালাম ও আবু বকর ছিদ্দিক।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri