রামুর বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম কাদেরের ইন্তেকাল

shok.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি(৫ জুলাই) :: রামুর কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম কাদের বৃহষ্পতিবার (৫ জুলাই) বিকাল তিনটায় রামুর কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের পশ্চিম কাউয়ারখোপ বৈলতলী গ্রামস্থ বাড়িতে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি সাবেক ইউপি সদস্য মৃত মালেকুজ্জামানের বড় ছেলে।

দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৬৩ বছর। তিনি স্ত্রী, ৩ মেয়ে, ১ ছেলেসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন রেখে গেছেন।

শুক্রবার সকাল দশটায় স্থানীয় জামে মসজিদ মাঠে মরহুমের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। মৃত্যুর খবর পেয়ে গোলাম কাদেরের বাড়িতে ছুঠে যান কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য ও কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শামসুল আলম। তিনি শোকাহত পরিবার-পরিজনকে শান্তনা জানান।

এদিকে বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম কাদেরের ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল। এক শোকবার্তায় সাংসদ কমল বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের অকুতোভয় সৈনিক গোলাম কাদের ছিলেন জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান।

সমাজ ও দেশের কল্যাণে তিনি ছিলেন নিবেদিতপ্রাণ ব্যক্তি। তাঁর মৃত্যুতে রামুবাসী একজন দেশপ্রেমিককে হারালো। তিনি মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন এবং শোকাহত পরিবার-পরিজনের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম কাদেরের ইন্তেকালে আরো শোক প্রকাশ করেছেন, রামু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রিয়াজ উল আলম, রামু উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল হক, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক নীতিশ বড়–য়া, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল হক হেলালী, আবদুল গনি, কাউয়ারখোপ ইউপি’র জহির উদ্দিন মেম্বার, হাবিব উল্লাহ মেম্বার, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ নোমান প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri