রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশের পাশে থাকবে মালেশিয়া : কক্সবাজারে মালেশিয়া প্রতিরক্ষামন্ত্রী

1531398993292_pic-ukhiya-1.jpg

মোসলেহ উদ্দিন,উখিয়া(১২ জুলাই) :: মালেশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী হাজী মোহাম্মদ বিন সাবু বলেছেন, বাংলাদেশেরমত একটি ছোট্র দেশের বিশাল রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে আশ্রয় দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবতার যে দৃষ্টান্ত রেখেছেন তা বিশ্বে বিড়ল। এসব রোহিঙ্গাদের খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান ও চিকিৎসা সেবাসহ আইনশৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখার জন্য বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের জন্য জাতিসংঘসহ আর্ন্তজাতিক বিশ্ব কাজ করছে। তাই যত দ্রুত সম্ভব এখানে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের মর্যদাসহকারে স্বদেশে ফেরত পাটানোর ব্যাপারে মালেশিয়া সরকার সব ধরনের সাহয্য সহযোগিতা করবেন। রোহিঙ্গারা এদেশে আশ্রয় নেওয়ার শুরু থেকে মালেশিয়া সরকার সহযোগিতা দিয়ে আসছে।

বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৩ টার দিকে কুতুপালং ডি-৫ ব্লকের বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের স্থাপনা গুলো ঘুরে দেখেন এবং রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলে তাদের সুখ দুঃখের কথা জানতে চান।

পরে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি আরো বলেন, রোহিঙ্গারা এখানে যতদিন থাকবে ততদিন পর্যন্ত মালেশিয়া সরকার সব ধরনের সহায়তা প্রদান করবে।

তিনি টিএন্ডটি এলাকায় তাদের প্রতিষ্টিত হাসপাতালের কথা উল্লেখ করে বলেন রোহিঙ্গারা যাতে চাহিদামত স্বাস্থ্য সেবা পায় সেজন্য প্রয়োজন বশত এ হাসপাতালকে আরো সম্প্রসারন করা হবে।

তিনি হাসপাতাল পরিদর্শনকালে হাসপাতালের দায়িত্বরত সংশ্লিষ্টদের স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের আরো আন্তরিক হওয়ার নির্দেশ দেন। মালেশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী বিকাল সাড়ে ৩টা থেকে সন্ধা ৬টা পর্যন্ত সেখানে অবস্থান করে স্থানীয় প্রশাসন ও বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় করেন। প্রায় ১৮ সদস্যর মালেশিয়ান প্রতিনিধিদল সাড়ে ৬ টার দিকে কক্সবাজারের উদ্দেশ্য কুতুপালং ত্যাগ করেন।

এসময় তাদের সাথে ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ সরওয়ার কামাল, এডিশনাল আর আর সি শমশুদ্দৌহা, উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নিকারুজ্জআমান চৌধুরীসহ বিমান বাহিনীর উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Share this post

PinIt
scroll to top