চকরিয়ায় প্রতিপক্ষের কিরিচের কোপে নারীসহ আহত-২

Chakaria-Picture-20-07-2018.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া(২০ জুলাই) :: চকরিয়া উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নে প্রতিতপক্ষের কিরিচের কোপে ৮মাসের গর্ভবতী নারীসহ দুইজন গুরুতর আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার দুর্গম জনপদ পুর্ব সুরাজপুর ভিলেজারপাড়ার অদুরে হিমছড়ি এলাকায় ঘটেছে এ হামলার ঘটনা। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় লোকজন চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। তবে তাদের শাররীক অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করে।

আহতরা হলেন, সুরাজপুর ভিলেজারপাড়ার হিমছড়ি এলাকার আব্দু সালামের ছেলে আব্দুল কাদের (২৫), তাঁর স্ত্রী ৮মাসের গর্ভবতী সাজেদা বেগম (২০)। বর্তমানে আহতরা চকরিয়া সিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত আব্দুল কাদেরের বড়ভাই বজল আহমদ গতকাল শুক্রবার স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘদিন ধরে একই এলাকার বাসিন্দা বিএনপি নেতা নুরুল আলমের সাথে তাদের বাবা আব্দুস সালামের মধ্যে জমির বিরোধ চলে আসছিল। বৃহস্পতিবার বিকালে ছোট ভাই আব্দুল কাদের ও তার স্ত্রী সাহেদা বেগম জমিতে কাজ করছিলেন।

ওইসময় নুরুল আলম দলবল নিয়ে তাদের উপর হামলা করে। ঘটনার সময় হামলাকারীরা আব্দুল কাদেরকে কোপাতে থাকে। তখন তাকে উদ্ধার করতে তার ৮মাসের গর্ভবতী স্ত্রী সাজেদা বেগম এগিয়ে গেলে তাকেও কুপিয়ে জখম করা হয়।

তিনি বলেন, আমাদের বাবা আব্দুস সালাম বনবিভাগের বনজাগিদার হিসাবে প্রাপ্ত ৬একর জমি দীর্ঘ ৪০বছর ধরে ভোগদখলে রয়েছেন। পক্ষান্তরে বিএনপি নেতা নুরুল আলম দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে জায়গাটি দখলের পাঁয়তারা করে আসছেন।

সর্বশেষ হামলার ঘটনায় নুরুল আলম ছাড়াও তাঁর সাথে ছিলেন স্থানীয় আবু বক্কর, আরিফ, সাইফুল, গুরা বাঁশি ও আবু তাহের প্রকাশ মনুসহ সহযোগিরা।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, এব্যাপারে থানায় এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ দেননি। তবে অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share this post

PinIt
scroll to top