izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

মাধুরীকে বিয়ে করতে চাননি যিনি

Madhuri-Dixit.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(২১ জুলাই) :: বহু গুণের অধিকারী তিনি। তার নাচ ও হাসিতে ঘায়েল ভক্ত-দর্শক। যৌবনে তার সৌন্দর্য বহু পুরুষের ঘুম কেড়ে নিয়েছিল। তিনি মাধুরী দীক্ষিত। আর তাকেই কিনা বিয়ে করতে অস্বীকার করেছিলেন এক ব্যক্তি। নিশ্চয়ই প্রশ্ন জাগছে, কে তিনি? আর কেনই বা তিনি মাধুরীকে বিয়ে করতে রাজি হননি?

১৯৮৪ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে ‘অবোধ’ সিনেমার মধ্য দিয়ে বলিউডে পা রাখেন এই বিউটি কুউন। নব্বইয়ের দশকে তার নাচ ও অভিনয় দর্শকদের স্মৃতিতে গেঁথে আছে। ‘তেজাব’ সিনেমায় তার ‘এক দো তিন’, ‘বেটা’ সিনেমায় ‘ধক ধক করনে লাগা’- ভোলার নয়।

কিন্তু মেয়ের মনে সারাক্ষণ শুধু নাচ আর অভিনয়। এতে রক্ষণশীল মারাঠি পরিবার কিছুটা শঙ্কিত ছিল। সিনেপ্রেমীদের মনে ঝড় তুললেও বাবা-মা মেয়েকে নিয়ে চিন্তিত। তারা ভাবতেন, মাধুরী ছবিতে অভিনয় করছে বলে তার বিয়ের ক্ষেত্রে ঝামেলা হবে। তাই অল্পবয়সেই মেয়েকে বিয়ে দিতে পাত্র খুঁজতে থাকেন মাধুরীর বাবা-মা।

গায়ক সুরেশ ওয়াডকর

এক পর্যায়ে পছন্দের পাত্র খুঁজে পান তারা। গায়ক সুরেশ ওয়াডকরের কাছে বিয়ের প্রস্তাব পাঠান মাধুরীর বাবা-মা। মাধুরীর চেয়ে ১২ বছরের বড় সুরেশের তখন বলিউডে কেবল কয়েকটা গান বেরিয়েছে। কিন্তু ‘পাত্রী রোগা’ এই অযুহাতে বলে তাকে বিয়ে করতে রাজি হননি তিনি।

এতে মাধুরীর বাবা বেশ আশাহত হয়েছিলেন। ভক্ত-দর্শকরা নিশ্চয়ই ভাবছেন, সুরেশের সঙ্গে বিয়ে হলে ‘আজা নাচ লে’-র মাধুরীকে পাওয়া যেতো কিনা কে জানে?

এরপর ১৯৯৯ সালে শ্রীরাম মাধব নেনের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন মাধুরী। অরিন আর রায়ান নামের তাদের দুই সন্তান রয়েছে।

সূত্র: এনডিটিভি

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri