থাগস অব হিন্দুস্তানে ইতিহাস গড়বেন আমির খান

thugs-of-hindostan.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৫ জুলাই) :: আমির খানের থাগস অব হিন্দুস্তান নিয়ে আলোচনা হচ্ছে অনেক দিন ধরেই, কিন্তু বিস্তারিত না। আমির খান বেশ ভালোভাবেই এ ছবি সর্ম্পকিত যাবতীয় তথ্য গোপন রেখেছেন। তবে ছবিটি কী ধরনের, কোন সময়ের, সে বিষয়ে একটা নিশ্চিত ধারণা পাওয়া গেছে— থাগস অব হিন্দুস্তান হচ্ছে পাইরেটদের ছবি।

তবে জানা গেছে ছবির শুটিং হওয়ার জন্য যে সময় নির্ধারিত ছিল, সে সময়ে কাজ শুরু হচ্ছে না, এটা এক রকম নিশ্চিত। কারণ, ছবির পরিচালক বিজয় কৃষ্ণ আচারিয়া ছবি শুরু করার আগে পুরোপুরি নিশ্চিত হতে চাইছেন, কোথাও কোনো খুঁত রয়ে যাচ্ছে কিনা। তিনি একটি পরিপূর্ণ দর্শকমুগ্ধ করার মতো ছবি তৈরি করতে চান।

আর থাগস অব হিন্দুস্তানের সর্বশেষ আরেকটি খবর হলো নির্মাতারা বিশাল দুটো জাহাজ তৈরি করেছেন ছবির জন্য। যার ওজন প্রায় দুই লাখ কিলোর মতো। ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এমন একজন জানিয়েছেন, ‘যেহেতু সমুদ্র ও জাহাজ নির্ভর ছবি, তাই আমির খান ও প্রযোজক আদিত্য চোপড়া চাইছেন সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা দিয়ে এমন এক বিশাল প্রদর্শনী হাজির করতে, যা হিন্দি ছবিতে আগে কেউ কখনো দেখেনি। ছবির বাজেট এখনো নির্ধারিত হয়নি। তবে সূত্র জানাচ্ছে, জাহাজ দুটো তৈরি করা হয়েছে, তার পেছনে কয়েক কোটি রুপি খরচ হয়ে গেছে।

ছবি সংশ্লিষ্ট আরো কিছু সূত্র জানাচ্ছে, ‘ইউরোপের মাল্টা উপকূলে প্রায় দুই বছর ধরে থাগস অব হিন্দুস্তানের জাহাজ দুটো বানানো হয়েছে। পরিচালক ভিক্টরও (বিজয় কৃষ্ণ আচারিয়া) বিশ্বাস করেন এ ছবি হিন্দি চলচ্চিত্র জগতে এক নতুন নজির তৈরি করবে, চলচ্চিত্র দর্শক এ রকম বিশাল আয়োজনের কোনো ছবি আগে কখনো দেখেনি।

তবে এটা মনে রাখতে হবে থাগস অব হিন্দুস্তান পুরোই একটি কাল নির্ভর ছবি। এ সময়ের তো নয়ই। এ ছবির সময়কাল ওই সময়, যখন সাগর শাসন করত জলদস্যুরা।’

থাগস অব হিন্দুস্তানে অভিনয় করছেন আমির খান, অমিতাভ বচ্চন, ক্যাটরিনা কাইফ ও ফাতিমা সানা শেখ মূল নায়িকার ভূমিকায়। ৭ নভেম্বর ২০১৮ সালে ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

সূত্র: ফিল্মফেয়ার

scroll to top