কক্সবাজার শহরের বহুল আলোচিত পেরোতা মনজুর আবারো জেলে

prt-mnj.jpg

সাইফুল ইসলাম(৮ আগস্ট) :: কক্সবাজার শহরের বহুল আলোচিত নানা অপকর্মের হুতা ও চাঁদাবাজ পেরেতা মনজুরকে আবারো জেল হাজতে প্রেরন করেছে আদালত।

৮ আগষ্ট (বৃহস্পতিবার) বান্দরবান সদর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক তাহমিনা আফরিন চৌধুরী জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জানা যায়, চট্টগ্রামের সাতকানিয়া এলাকার শফিউল আলম বাদী হয়ে ২০১৭ সালে দায়েরকৃত ৯৯/১৭নং মামলায় টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে বিচারকার্য শুরু হয়। সেই মামলায় জামিন নিতে গিয়ে দীর্ঘ শুনানীর পর বিজ্ঞ বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরন করেন। যার মামলা নং-জি আর ৯৯/১৭ ইং।

প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, এছাড়াও তাঁর বিরুদ্ধে ভুমিদস্যূ, চাঁদাবাজি ও নারি নির্যাতন-সহ নানা অপকর্মের একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানা যায়। এর আগেও বেশকয়েবার পুলিশের হাতে আটক হলেও আদালতে থেকে জামিনে ছাড়া পেয়ে যায়।

এদিকে জামিন নিয়ে বাহির হওয়ার সাথে সাথে আবারো সে বিভিন্ন অপকর্মে জড়িত হয়ে পড়ে বলে অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তার নানা অপকর্মের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে এলাকার মানুষ। ডজন মামলার আসামী পেরেতা মনজুর সদরের ঈদগাঁও ইসলামাবাদ ভোয়ালখালী এলাকার এবং বতর্মানে শহরের পানবাজার রোডের সুলতান আহমদের ছেলে।

পেরোতা মনজুর একদিকে নিজেও ডজন মামলার আসামী। অন্যদিকে এলাকার নিরহ মানুষকে হয়রানি করার জন্য অনেকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দপ্তরে হয়রানিমূলক অভিযোগও করে থাকে। তার ভুঁয়া অভিযোগের ভিত্তিতে একাধিক মানুষ হয়রানির শিকার হচ্ছে। এমনকি তিনি বিভিন্ন কুশলে ৮টি বিয়েও করেছে বলে জানা যায়। পাশাপাশি পেরেতা মনজুন একজন চাঁদাবাজ পরধনলোভী, ভুমিদস্যু ও সন্ত্রাসী টাইপের লোক।

এছাড়ও ডেভেলপ্ট কোম্পানির সেলিম উদ্দীন নামে এক ব্যক্তি থেকে ৮০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছে বলে জানা যায়।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri