মহেশখালীতে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, স্বামী পুলিশ হেফাজতে

11.jpg

এম রমজান আলী,মহেশখালী(১৮ আগষ্ট) :: মহেশখালীতে কুষ্টিয়ার এক নারীর গলায় ফাসঁ লাগানো লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

১৮আগস্ট দুপুর ১টায় মহেশখালী পৌরসভার গোরকঘাটা সিকদার পাড়া গ্রামের আব্দুল হাকিম প্রকাশ ঢাকাইয়্যা হাকিমের ভাড়া বাসায় ওই ঘটনা ঘটে।

স্বামী মহেশখালী ডিজিটাল আইল্যান্ডের সহকারী প্রকৌশলী আবু রায়হান (২৭)।

এক বছর পূর্বে বিয়ে হয় কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা থানার সাতবাড়িয়া গ্রামের সাবান আলীর মেয়ে অন্তরা বেগম (২০)।

স্বামী আবু রায়হান জানায়, কুষ্টিয়া নিজের বাড়ীতেও প্রায় সময় স্ত্রীর সাথে ছোট বোনের বিবাহ নিয়ে ঝগড়া বিবাধ ছিল। কয়েক মাস পূর্বে স্বামী-স্ত্রী ঢাকায় বসবাস করে আসছিল।চলতি মাসে স্বামীর চাকরী হয় মহেশখালী ডিজিটাল আইল্যান্ডে প্রকল্পের সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে।

স্ত্রী অন্তরা বেগম এক সপ্তাহ পূর্বে মহেশখালীতে এসে গোরকঘাটা হাকিম সওদাগরের বাড়ীতে উঠে। শুক্রবার রাতে কলেজে ভর্তি বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়।

১৮আগস্ট স্বামী বাজারে গেলে স্ত্রী রুমে গলায় ফাসঁ লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। দুপুর ১ টায় স্বামী আবু রায়হান বাড়ীতে এসে স্ত্রীকে ডাকাডাকি করে দরজা বন্ধ পেয়ে জানালা দিয়ে দেখতে পায় স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ।

এ সময় পাশের লোকজনের সহায়তায় দ্রুত মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।

মহেশখালী থানা পুলিশ নিহত নারীর সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত স্বামী আবু রায়হান পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।

এ ব্যাপারে মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, গলায় ফাসেঁর চিহ্নিত মহিলার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।স্বামী পুলিশ হেফাজতে রয়েছে ।তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।আবু রায়হান ভেড়ামারা থানার একই এলাকার আজিজুল হকের পুত্র।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri