izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

উখিয়ায় রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয়দের সুযোগ সুবিধা দেওয়ার জন্য সেবা সংস্থাদের প্রতি আহবান

IMG_20180909_113803_923.jpg
মোসলেহ উদ্দিন,উখিয়া(৯ সেপ্টেম্বর) :: রোহিঙ্গাদের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ স্থানিয় জনগোষ্ঠির সাথে আলোচনা সভা গত শনিবার বিকালে স্থানীয় রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে স্থানীয় জনগোষ্টির স্বার্থ সংরক্ষণের ওপর গুরুত্বপুর্ণ আলোচনা করেন মোঃ রমিজ উদ্দিন হেডঅব রেজাল্টস ম্যানেজার, রেজুওয়ানুল হক জামী ই-কমার্স বিশেষজ্ঞ, মোঃ পারভেজ হাসান স্থানীয় উন্নয়ন বিশেষজ্ঞ উপসচিব, আনিস চৌধুরী পলিস এ্যাডভাইজার এটু-আই, মাজেদুল ইসলাম,
প্রকল্প পরিচালক এটু-আই বিশেষজ্ঞ, মানিক মাহমুদ হেড অব কম্যুনিক্যাসন এটু-আই, তাহুরুল হাসান ডিজিটাল ফাইনান্সিয়াল সিষ্টেম বিশেষজ্ঞ, এবং উখিয়া উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিক বৃন্দ যথাক্রমে সাংবাদিক রফিক উদ্দিন বাবুল, সাংবাদিক শহিদুল ইসলাম, সাংবাদিক মোসলেহ উদ্দিন, সাংবাদিক সরোয়াল আলম শাহিন, সাংবাদিক কমরুদ্দিন মুকুল, মেম্বার খোরশেদা বেগম, মেম্বার ইকবাল বাহার সহ আরো অনেকেই।
অনুষ্টানের প্রধান আয়োজক রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানও উপজেলা আওয়ামিলীগের সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী বলেন,
গত ২৫ আগষ্ট ২০১৮ রোহিঙ্গাদের আগমনের এক বছর পুর্ণ হয়েছে। এ পর্যন্ত সাড়ে লাখ রোহিঙ্গা নরনারী বসবাস করছে। সরকারও সেবা সংস্থারা তাদের অন্ন বস্ত্র বাসস্থান সহ স্বাস্থ্য সেবার অধিকতর গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে। কিন্ত রোহিঙ্গারা আসার পর থেকে যানজট সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিষের প্রভাব পড়ে দ্রব্যমুল্যের উর্ধগতিতে সাধারন মানুষের নাভিশ্বাসে পরিনত হয়েছে।
কর্মহীন স্থানীয়দের রোজি রোজগারের কোন ব্যবস্থা না করে অন্য জেলার লোক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। অপরদিকে ক্যাম্পগুলোতে গভীর নলকুপ স্থাপন করায় স্থানীয়দের সেলু নলকুপে পানি পাচ্ছেনা।
রোহিঙ্গাদের সেবায় নিয়োজিত অতিরিক্ত গাড়ির চাপে স্থানীয় গ্রামগুলোর রাস্তাঘাট অযোগ্য হয়ে পড়ায় স্থানীয়রা কস্টসাধ্য জীবন যাপন করছে। তিনি রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয়দের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা বিতরনের সেবা সংস্থাদের প্রতি আহবান জানান।

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri