izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

নাইক্ষ্যংছড়িতে দুই দিনের ব্যবধানে আবারো ডাকাতি

dakati-new.jpg

আব্দুল হামিদ,নাইক্ষ্যংছড়ি(১০ সেপ্টেম্বর) :: বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে দুই দিনের ব্যবধানে আবারো ডাকাতি সংগঠিত হয়েছে। ডাকাত দল দুটি দোকান ও দুই বসতবাড়ি লুট করেছে। ডাকাতের প্রহারে আহত হয়েছে সুমি আক্তার নামে নবম শ্রেণীতে পড়–য়া এক ছাত্রী। রোববার দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের নন্নাকাটা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মুখোষ পরিহিত ১০-১২ জনের সংঘবদ্ধ একটি ডাকাত দল নন্নাকাটা গ্রামের বাসিন্দা সলিমুল্লাহর দোকানে হানা দিয়ে নগদ ৬০ হাজার টাকা এবং মনির আহমদ, মীর কাশেম, খুইল্লা মিয়ার বসতবাড়ি থেকে মোবাইল সেট ও মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়।

এসময় খুইল্লা মিয়ার মেয়ে নবম শ্রেণীতে পড়–য়া ছাত্রী সুমি আক্তার চিৎকার করলে ডাকাতদল তাকে মারধর করে আহত করে। পরে ডাকাত দল ৩-৪ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। সোমবার ভোরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছে নাইক্ষ্যংছড়ি জোন সদরের বিজিবি ও থানা পুলিশ।

ডাকাতির সত্যতা নিশ্চিত করে নাইক্ষ্যংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: আলমগীর শেখ বলেন- উখিয়া, পাতাবাড়িসহ বহিরাগত এলাকার কিছু লোক এই অপরাধের সাথে জড়িত। ইতিপূর্বে এই সিন্ডিকেটকে আটক করা হয়েছিল। সম্প্রতি জামিনে এসে আবারো ডাকাতি করছে। তবে তাদের আটকে পুলিশ তৎপরত রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত এক বছর যাবত সোনাইছড়ি-নিকুছড়ি ও চাকঢালা সীমানা ঘেষে ১০-১২ জনের অস্ত্রধারী ডাকাতদল লুটপাট চালাচ্ছে। ওই ডাকাত দলের আতংকে চাক সম্প্রদায়ের বেশ কয়েকটি পরিবার গ্রাম ছাড়া হয়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri