izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের স্বাস্থ্যের উন্নয়নে জন্য বিশ্বব্যাংকের ৪১০ কোটি টাকা সহায়তা

Rohingya-refugee-children-fly-improvised-kites.jpg

কক্সবাংলা রিপোর্ট(২০ সেপ্টেম্বর) :: কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফে আশ্রয় নেয়া ১১ লাখ রোহিঙ্গাদের স্বাস্থ্যের উন্নয়নের জন্য ৫ কোটি ডলার বা ৪১০ কোটি টাকা সহায়তা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক।

এই সহায়তার মধ্যে ৪ কোটি ১৬ লাখ ৭০ হাজার ডলার অনুদান এবং ৮৩ লাখ ৩০ হাজার ডলার ঋণ। অার কক্সবাজারে অনুপ্রবেশের পর রোহিঙ্গাদের সহায়তার জন্য এটি বিশ্বব্যাংক সিরিজের প্রথম কোনো অর্থায়ন।

বৃহস্পতিবার বিশ্বব্যাংক ও বাংলাদেশ সরকারের মধ্যে এই চুক্তি সই হয়।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সম্মেলন কক্ষে এই ঋণ ও অনুদান চুক্তিতে সই করেন ইআরডি সিনিয়র সচিব কাজী শফিকুল আযম এবং বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ কান্ট্রি ডিরেক্টর চিমিয়াও ফান। এ সময় দুই সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এই অতিরিক্ত অর্থায়নের উদ্দেশ্য হলো কক্সবাজার জেলার স্থানীয় জনগণসহ রোহিঙ্গা শরণার্থীদের এইচএনপিসহ অন্যান্য সেবা কার্যক্রম অব্যাহত রাখা।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ এবং স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের অধীনে এই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

৮৩ লাখ ৩০ হাজার ডলার ঋণ দেয়া হচ্ছে বিশ্বব্যাংকের আইডিএ শাখা থেকে। এই অর্থ দিচ্ছে কানাডা সরকার। কানাডার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে ওই ঋণের অর্থ পরবর্তী সময় অনুদানে পরিণত হবে বলে ইআরডি থেকে জানানো হয়েছে।

কাজী শফিকুল আযম বলেন, মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের মানবিক কারণেই বাংলাদেশ আশ্রয় দিয়েছে। এদের বেশির ভাগই হলো নারী ও শিশু। তাদের এখন সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন স্বাস্থ্যসেবার।

বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মাধ্যমে তাদের স্বাস্থ্যসেবা দেয়ার জন্য বিশ্বব্যাংক আঞ্চলিক শরণার্থী তহবিলের ৪৮ কোটি ডলার থেকে ৫ কোটি ডলার দিয়েছে।

তিনি উন্নয়ন সহযোগীদের উদ্দেশ্য বলেন, আমরা আশা করব উন্নয়ন সহযোগীরা তাদের দেয়া প্রতিশ্রæতির অর্থ ছাড়ে গতি বাড়াবে।

চিমিয়াও ফান বলেন, কুতুপালং ক্যাম্পসহ প্রায় দশ লাখ রোহিঙ্গা কক্সবাজারে আশ্রয় নিয়েছে। তারা বিভিন্ন রোগের ঝুঁকি মোকাবেলা করছে। তাদের জন্য প্রয়োজন স্বাস্থ্যসেবা।

বিশ্বব্যাংকের এই অনুদান সরকারের পরিকল্পনা ও রোহিঙ্গাদের জন্য স্বাস্থ্য, পুষ্টিসেবা প্রকল্পে সহায়তা করবে।

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri