টেকনাফে ১ কোটি ২৩ লক্ষ টাকার ইয়াবা ও চোরাইপণ্য সহ নৌকা জব্দ

2292.jpg

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(২২ সেপ্টেম্বর) :: টেকনাফ সীমান্তে বিজিবি জওয়ানেরা অভিযান চালিয়ে ১কোটি ২৩লক্ষ ৮০হাজার ৮শ টাকার ইয়াবা বড়ি ও চোরাইপণ্যসহ কাঠের নৌকা জব্দ করেছে।

জানা যায়, ২২ সেপ্টেম্বর ভোররাত সাড়ে ৩টারদিকে টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের দমদমিয়া বিওপির সুবেদার মোঃ আব্দুর রাজ্জাক গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ টহল দল নিয়ে হ্নীলা দমদমিয়াস্থ ওমরখাল বরাবর নাফ নদীর কিনারায় কেওড়া বাগানে অবস্থান নেয়।

চোরাইপণ্য বোঝাই নৌকাটি খালাসের প্রস্তুতিকালে বিজিবি জওয়ানেরা চ্যালেঞ্জ করা মাত্র নৌকাটি ফেলে পালিয়ে যায়। বিজিবি জওয়ানেরা নৌকাটি জব্দ করে তল্লাশী চালিয়ে ৯০ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ৩০ হাজার ইয়াবা, ৫ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ১০০ কেজি কারেন্ট জাল, ৪০ হাজার টাকা মূল্যমানের ৮০ কেজি সুপারি, ৩০ হাজার টাকা মূল্যমানের ৩ হাজার পিস ষ্টীল চামচ, ৬ হাজার টাকা মূল্যমানের ৬০টি ছোট ওড়না, ৫০ হাজার টাকা মূল্যমানের ১০০ জোড়া স্যান্ডেল, ১০ হাজার ৮শ টাকা মূল্যমানের ২শ ১৬পিস স্কার্ট (নীচের পার্ট), ২৮ হাজার টাকা মূল্যমানের ১শ ৪০ পিস স্কার্ট (উপরের পার্ট) এবং ২৭ লক্ষ ৬হাজার টাকা মূল্যমানের ১৩ হাজার ৫শ ৩০ প্যাকেট সিগারেটসহ মোট ১ কোটি ২৩ লক্ষ ৮০ হাজার ৮শ টাকা।

যা পরবর্তীতে উর্ধ্বতন কর্মকর্তা,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি ও মিডিয়া-কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করার জন্য ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রেখে অপর জব্দকৃত নৌকা ও চোরাইপণ্য হ্নীলা শুল্ক গুদামে জমা করা হয়েছে।

এদিকে নাইট্যং পাড়া, দমদমিয়া, দক্ষিণ জাদিমোরা, জাদিমোরা, নয়াপাড়া, মোচনী, লেদা, আলীখালী, চৌধুরী পাড়া, সুলিশ পাড়া, হোয়াব্রাং, মৌলভী বাজার ও নয়া বাজারসহ বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে চোরাচালানের আড়ালে মাদকের চালান খালাস হয়ে আসছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri