পেকুয়ায় শ্বাসরুদ্ধ করে প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যা চেষ্টা

hotta-try-2.jpg

নাজিম উদ্দিন,পেকুয়া(২ নভেম্বর) :: পেকুয়ায় স্বাসরুদ্ধ করে প্রবাসীর স্ত্রীকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। যৌতুক সংক্রান্ত জের ধরে স্বামীর অনুপস্থিতিতে শাশুড় বাড়ীর লোকজন এ গৃহবধূকে গলায় রশি পেঁচিয়ে স্বাসরুদ্ধ করে হত্যা চেষ্টা চালায়।

এ সময় মুমূর্ষূ অবস্থায় ওই নারীকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার সদর ইউনিয়নের পশ্চিম গোঁয়াখালী কাটাফাঁিড় ব্রীজ সংলগ্ন স্থানে এ ঘটনা ঘটে। প্রবাসীর স্ত্রীর নাম নিলুফা বেগম(২২)। তিনি ওই এলাকার ওমান প্রবাসী সেলিম বাদশার স্ত্রী।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সুত্র জানায়, যৌতুক দাবীকে কেন্দ্র করে নিলুফা বেগম ও ভাসুর আবদু রহিম, ননদ সাজেদা বেগম প্রকাশ সাজু ও রশিদা বেগম প্রকাশ লেদুনির মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়।

এর জের ধরে এ ৩ জন মিলে ছোট ভাইয়ের স্ত্রী নিলুফা বেগমকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আঘাত করে। এ সময় বসতবাড়ির একটি কক্ষে নিলুফাকে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে তারা গলায় রশি পেঁচিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা চেষ্টা চালায়।

নিলুফা আক্তার জানায়, ২ বছর আগে বিয়ে হয়েছে। আমার স্বামী এক বছর আগে ওমানে গেছে। ২ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবী করছিল। বিদেশ থেকে প্রায় সময় টাকার জন্য বলাবলি করেছে। স্বামীর ইন্ধনে তারা ৩ জন আমাকে রশি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে হত্যা চেষ্টা চালায়। আমার সাথী নামের ১ বছর বয়সের কন্যা সন্তান আছে।

তারা আমার সন্তানকে জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয়। দুধ পান করতে শিশুটি অস্থির ছিল। প্রায় ১ দিন পর শিশুটিকে আমাকে ফেরত দেয়। গ্রাম পুলিশসহ আমার অভিভাবকরা মুমূর্ষূ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri