izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

পেকুয়ায় অা’লীগ অফিস লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ : বিভিন্ন স্থানে ১২০ রাউন্ড গুলিবর্ষণ, গাড়ি ভাংচুর

20181107_114117.jpg

মো: ফারুক,পেকুয়া(৭ নভেম্বর) :: কক্সবাজারের পেকুয়ায় অাওয়ামীলীগ অফিস লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করেছে দূর্বৃত্তরা। দূর্বৃত্তরা দুই মটর সাইকেল যোগে ফাঁকা গুলিবর্ষণ করতে করতে অা’লীগ অফিসে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করলেও লক্ষ্যভ্রষ্ট্র হওয়ায় বড় ধরণের ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা পায়।

এছাড়াও দূর্বৃত্তরা পেকুয়া বাজারে সিএনজি গাড়ি ভাংচুর, সদর সালাউদ্দিন ব্রীজ এলাকায় ফাঁকা গুলিবর্ষণ, টইটংয়ের হাজ্বি বাজারে ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে সিএনজি গাড়ি ভাংচুর করে।

ঘটনা পরবর্তি পুলিশ পরিদর্শক জাকির হোসেন ভুইয়ার নেতৃত্বে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ভাংচুরকৃত ৩টি সিএনজি থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। একজন ড্রাইভারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অাটক করা হয়েছে।

বুধবার (৭ নভেম্বর) রাত ৯থেকে ১০টার ভিতর বিভিন্ন পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে।

পেকুয়া বাজারস্থ অাওয়ামীলীগ অফিসের সামনে প্রত্যক্ষদর্শীর বরাদ দিয়ে কয়েকজন জানিয়েছে, রাত সাড়ে ৯টার দিকে পেকুয়া বাজারের মধ্য স্থান থেকে ৪ যুবক মটর সাইকেল নিয়ে ফাঁকা গুলিবর্ষণ করতে করতে অা’লীগ অফিসের সামনে গিয়ে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করার চেষ্টা করে। টহল পুলিশ ওই যুবকদের ধাওয়া দিলে পেট্রোল বোমা লক্ষ্যভ্রষ্ট্র হয়ে একটি সিএনজির সামনে পড়ে অাগুন ধরে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।

এদিকে ৯টার দিকে টইটং ইউনিয়নের হাজ্বি বাজার এলাকায় কয়েকজন যুবক ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে জামাল হোসেন নামের এক ব্যক্তির সিএনজি ভাংচুর করে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করে। ওই সময় স্থানীয় ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসী এগিয়ে অাসলে অাবারো ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে দূর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

রাত সাড়ে ৮টার দিকে পেকুয়া সদর ইউনিয়নের সালাউদ্দিন ব্রীজ ও নন্দীর পাড়া এলাকায়ও ফাঁকা গুলি বর্ষণ করা হয়।

এদিকে ঘটনার পর পর পেকুয়ার লোকজনের মধ্যে অাতংক দেখা দেয়। ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ করে দেয়। তাৎক্ষনিকভাবে পেকুয়া থানা পুলিশ সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনা করলেও জড়িত কাউকে অাটক করতে পারেনি। তবে পেকুয়া বাজারে পুড়ে যাওয়া সিএনজির এক চালকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অাটক করা হয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

পেকুয়া বাজারে পুড়ে যাওয়া সিএনজি মালিক অাবুল কাশেম বলেন, কয়েকজন যুবক মটর সাইকেল নিয়ে অাওয়ামীলীগ অফিসের সামনে অাসে। ওই সময় অামি গাড়ি নিয়ে ভাড়ার জন্য অফিসের সামনে অবস্থান করছিলাম। অফিস লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপের চেষ্টা করলে টহল পুলিশ এগিয়ে অাসে। ওই সময় তাদের ছুড়ে মারা পেট্রোল বোমাটি অামার গাড়িতে পড়লে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।

পেকুয়া থানার ওসি জাকির হোসেন ভুইয়া বলেন, অাওয়ামীলীগ অফিসের সামনে ৪০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ, গাড়ি ভাংচুর ও পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করা হয়। টইটংয়ে গাড়ি ফাঁকা গুলি বর্ষণ ও গাড়ি ভাংচুরসহ অারো কয়েকটি স্থানে ১২০রাউন্ডমত ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে অাতংক সৃষ্টি করা হয়।

নির্বাচনকে সামনে রেখে নাশকতার পরিকল্পনা ছিল বিএনপি-জামায়াত নেতাকর্মীদের। এরই ধারাবাহিকতায় তফশিল ঘোষানাকে কেন্দ্র করে বিএনপি-জামায়াত ফাঁকা গুলিবর্ষণ, পেট্রোল বোমা ও গাড়ি ভাংচুর করা হয়। জড়িতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট অাইনে মামলা রুজু করা হবে।

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri