izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

মোজার দুর্গন্ধ দূর করতে যা করবেন

Socks-.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(১১ নভেম্বর) :: অনেকেই আছেন যারা পা ঘামা সমস্যায় ভোগেন। অথচ তারপরও সারাদিন জুতা পড়ে থাকতে হয়।  অন্যদিন সারাদিন ব্যবহারের কারণে মোজায় ভেজা ভেজা বা চটচটে ভাব দেখা দেয়।  জুতা খুললেই প্রচণ্ড গন্ধ বের হয়।যাদের পা ঘামা সমস্যা আছে তাদের শীতকালেও পা ঘামে।

ঘেমে যাওয়া পায়ে খুব দ্রুত ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে শুরু করে । এ কারণে পায়ে বিশ্রী দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। এরকম সমস্যায় যারা ভোগেন তাদের প্রায় বিব্রত হতে হয়। কিছু ঘরোয়া উপায়ে মোজার দুর্গন্ধ দূর করা যেতে পারে। যেমন-

১. বেকিং সোডার অ্যাসিডিক উপাদান পা পরিষ্কার রাখতে সহায়তা করে । সেই সঙ্গে পায়ে ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে বাঁধা সৃষ্টি করে। ফলে অতিরিক্ত ঘেমে যাওয়া এবং পায়ে বিশ্রী দুর্গন্ধ হওয়ার সমস্যা কমে যায়। পা খুব ভাল করে পরিষ্কার করে, হাতে সামান্য বেকিং সোডা নিয়ে পায়ে ভাল করে ঘষে নিন। এর ফলে পায়ে অতিরিক্ত ঘাম হওয়া বন্ধ হবে। জুতা পড়ার পর ভিতরেও ছিটিয়ে নিতে পারেন খানিকটা বেকিং সোডা। তাহলে দুর্গন্ধ কমে আসবে।

২. লবণ পানি পায়ে ফাঙ্গাসের আক্রমণ ঠেকাতে সাহায্য করে। নিয়মিত লবণ পানি ব্যবহারে পা অতিরিক্ত ঘেমে যাওয়ার সমস্যা  কমে যায়। প্রতিদিন বাড়িতে ফিরে সামান্য গরম পানিতে লবণ  মিশিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। এতে পা ঘামার সমস্যা যেমন দূর হবে তেমনি পায়ে ছত্রাকের আক্রমণও কমে যাবে।

এছাড়া পায়ে অতিরিক্ত দূর্গন্ধ দূর করতে আরও কিছু পরামর্শ মনে রাখতে পারেন। যেমন-

১. সবসময় সুতির মোজা ব্যবহার করুন।

২. সপ্তাহে অন্তত একবার জুতার ভিতরে সুগন্ধি পাউডার দিয়ে, ভাল করে কাপড় দিয়ে মুছে নিন।

৩.  মাঝে মধ্যে জুতা রোদে দিন।

৪. একই মোজা পর পর দু’দিন ব্যবহার করা ঠিক নয়।

৫. নিয়মিত পা পরিস্কার রাখুন। বাইরে থেকে বাড়িতে ফিরে হালকা গরম পানিতে লবণ মিশিয়ে ভাল ভাবে পা ধুয়ে নিন।

৬. ভাল করে পা মুছে, ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

সূত্র : জি নিউজ 

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri