কক্সবাজারের পেকুয়ায় র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ জলদস্যু নিহত

arms-fight-cross-dead-pk.jpg

মো: ফারুক,পেকুয়া(৫ ডিসেম্বর) :: কক্সবাজারের পেকুয়ার মগনামা লঞ্চঘাট চ্যানেলে র‌্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ কুতুবদিয়া চ্যানেলের জলদস্যু তারেক (৩১) নিহত হয়েছে। নিহত তারেক কুতুবদিয়ার উত্তর ধুরং এলাকার আবদুস শুক্কুরের পুত্র।

বুধবার (৫ ডিসেম্বর) ভোররাত ৪টার দিকে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

এই ঘটনায় একটি বিদেশি পিস্তল ও দুটি ওয়ান শুটারগান, ২৩ রাউন্ড গুলি এবং চার রাউন্ড খালি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে র‌্যাব সূত্র নিশ্চিত করেছে।

সত্যতা নিশ্চিত করে র‌্যাব কক্সবাজার ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর মেহেদী হাসান জানান, সম্প্রতি জলদস্যুরা সাগর থেকে কয়েকটি মাছধরার বোট অপহরণ করে। পরে মুক্তিপণ দাবি করে মালিকদের কাছ থেকে মুক্তিপণ দাবি করে আসছিল তারা। মুক্তিপণ আদায় করতে তারেকসহ একদল জলদস্যু পেকুয়ার মগনামায় আসে। খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি টহল দল সেখানে অভিযানে যায়।

উপস্থিতি টের পেয়ে জলদস্যুরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি করলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থল থেকে এক জলদস্যুকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জলদস্যু তারেক দীর্ঘদিন ধরে সাগরের বোট ডাকাতির সাথে জড়িত ছিলো। সম্প্রতি র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত শীর্ষ জলদস্যু দিদার নেতৃত্বাধীন দিদার বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড হিসাবে দায়িত্বপালন করছিল।

তার বিরুদ্ধে কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন থানায় দস্যুতা, ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে চারটি মামলা রয়েছে বলে জানান মেজর মেহেদী হাসান।

মেজর মেহেদী হাসান জানান, তারেকের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Share this post

PinIt
scroll to top