টেকনাফে ডিসেম্বর মাসে ২১ কোটি ৮৪ লক্ষ টাকার মাদক ও চোরাইপণ্য জব্দ : আটক-৪১

Teknaf-Pic-A-03-01-19.jpg

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(৩ জানুয়ারী) :: টেকনাফ সীমান্তে বিজিবি জওয়ানেরা গত ডিসেম্বর মাসে সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযান চালিয়ে ২১ কোটি ৮৩ লক্ষ ৭৯ হাজার ৪শ ৮০টাকার ইয়াবাসহ বিভিন্ন প্রকার মাদকদ্রব্য ও অন্যান্য মালামাল জব্দ করেছে।

৭১টি চোরাই মামলার বিপরীতে ৪১জনকে আটক করা হয়েছে। বিপরীতে পলাতক আসামী করা হয়েছে ৩জনকে।

জানা যায়, গত ২০১৮ সালের ১লা ডিসেম্বর হতে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের আওতাধীন বিওপি ও চেকপোস্ট সমুহ সীমান্ত পয়েন্ট, জলে-স্থলে এবং চেকপোস্টে অভিযান চালিয়ে ৫৭টি মাদক মামলার বিপরীতে ৯৯হাজার ৩শ ৯৪পিস ইয়াবাসহ ৪১জনকে আটক করে। এই ঘটনায় আরো ৩জনকে পলাতক আসামী করা হয়েছে।

পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে ৭ লক্ষ ৭ হাজার ৫শ ১৯পিস ইয়াবা বড়ি। ৩টি মামলার বিপরীতে ২লক্ষ ৮০হাজার ৫শ টাকার ১৮৭ বোতল বিদেশী মদ উদ্ধার, ১টি মামলার বিপরীতে ১৮ হাজার ৯শ টাকার ৬৩লিটার দেশীয় চোলাই মদ, ১টি মামলার বিপরীতে ৩ হাজার ৫শ টাকা মূল্যমানের ১ কেজি গাঁজা, মালিকবিহীন ৩টি মামলার বিপরীতে ৩ লক্ষ ৩১হাজার ৭শ ৫০টাকার ১হাজার ৩শ ২৭ক্যান বিয়ার এবং ৬টি অন্যান্য চোরাচালান মামলায় মালিকবিহীন ৫৪লক্ষ ৮৯হাজার ১শ ৩০টাকার চোরাইপণ্যসহ ২১কোটি ৮৩লক্ষ ৭৯হাজার ৪শ ৮০টাকার মাদক ও চোরাইপণ্য উদ্ধার করা হয়।

এদিকে মাসিক অভিযানের সার্বিক পর্যালোচনা করে সীমান্তে মাদক ও চোরাচালান তুলনামুলক কমে আসছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri