টেস্টে সচিনকে টপকে গেলেন কচ্ছ্বপ গতির পূজারা

sachin-pujara.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৩ জানুয়ারি) :: ‘পূজারা 2.0’৷ সিডনিতে শতরানের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেয়ে গিয়েছে অভিনব এই ডায়লগ৷ রজনীকান্ত অভিনীত ২.০ সিনেমার চিট্টি ২.০ ভার্সানের সঙ্গেই তুলনা চলছে নয়া পূজারার৷ নেটিজেনের এমন মজার তুলনার কারণ একটাই, লাল-বলের ক্রিকেটে ভারতের নয়া রানমেশিন এখন চেতেশ্বর পূজারা৷

বৃহস্পতিবার সিডনিতে শতরান হাঁকিয়ে চলতি ভারত-অজি সিরিজে তৃতীয় সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ফেললেন পূজারা৷ এর আগে চলতি সিরিজে অ্যাডিলেড ও মেলবোর্নে শতরান হাঁকিয়েছেন ভারতের মিডল অর্ডারের নির্ভরযোগ্য এই ব্যাটসম্যান৷ সেই সঙ্গে এদিন লিটল মাস্টার সচিনকেও টপকে গেলেন৷

অজিভূমিতে টেস্টের প্রথম দিনে অতীতে সচিন হাঁকিয়েছেন ১২৪ রান৷ ২০০৮ এর অ্যাডিলেড টেস্টের প্রথম দিন এই রান হাঁকিয়েছিলেন মাস্টারব্লাস্টার৷ অজিদের ডেরায় টেস্টের প্রথম দিনে ভারতীয়দের মধ্যে সর্বাধিক রান হাঁকানোর বিচারে চারে ছিলেন সচিন৷ সিডনি টেস্টের প্রথম দিনে ১৩০ রান হাঁকিয়ে সচিনকে টপকে চার নম্বরে জায়গায় এখন সৌরাষ্ট্রের ব্যাটসম্যান পূজারা৷

একনজরে দেখে নিন- অজিভূমিতে টেস্টের প্রথম দিনে সর্বাধিক রান হাঁকানো ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের তালিকা-

১) বীরেন্দ্র সেহওয়াগ- ২০০৩ সালে মেলবোর্ন টেস্টে প্রথম দিনে  ১৯৫ রান হাঁকিয়েছেন৷
২) মুরলী বিজয়- ২০১৪ সালে ব্রিসবেন টেস্টে প্রথম দিনে ১৪৪ রান হাঁকিয়েছেন
৩) সুনীল গাভাসকর- ১৯৮৬ সালে সিডনি টেস্টে প্রথম দিনে ১৩২ রান হাঁকিয়েছেন
৪)চেতেশ্বর পূজারা- ২০১৯ সালে সিডনি টেস্টে প্রথম দিনে ১৩০* রান হাঁকিয়েছেন
৫)সচিন তেন্ডুলকর-২০০৮ সালে অ্যাডিলড টেস্টে প্রথম দিনে ১২৪ রান হাঁকিয়েছেন

সিরিজের শুরু আর শেষে মিশে রইলেন পূজারা

অ্যাডিলেড চেতেশ্বর পূজারার ১২৩ রানের দারুণ এক ইনিংসে ভর করে টেস্ট জিতেছিল ভারত। চার ম্যাচ সিরিজের সেটি ছিল শুরু। এরপর পার্থ, মেলবোর্ন ঘুরে সিডনিতে শেষের অপেক্ষায় সিরিজ। শেষ ম্যাচেও ভারতের ত্রাণকর্তা আর অস্ট্রেলিয়ার গলার কাঁটা হয়ে ঝুলে আছেন কচ্ছ্বপ গতির ব্যাটিংয়ের জন্য সমালোচিত এ ভারতীয় ব্যাটসম্যান।

এই টেস্টে জিতলে কিংবা ড্র করলেই ইতিহাস পাল্টাবে বিরাট কোহলির দল। সেই মিশনে টস জিতে ব্যাটিং নিয়ে শুরুতে হোঁচট খায় সিরিজে ২-১ এ এগিয়ে থাকা ভারত।

পূজারার ১৩০ রানের অপরাজিত ইনিংসে ভর করে সিডনি টেস্টের প্রথম দিন শেষে সুবিধাজনক অবস্থানে আছে ভারত। দিনশেষে বিরাট কোহলির দলের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৩০৩।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা ফেলার পর থেকেই ৫০ছুঁইছুঁই স্ট্রাইকরেটের জন্য নিজ দেশের সমর্থকদের কাছেই ব্যাপকভাবে সমালোচিত পূজারা। মারদাঙ্গা টি-টুয়েন্টির যুগে এমন ব্যাটিং চলে না; এমন যুক্তিতে রঙিন পোশাকের দলেও জায়গা হয় না তার।

 

Advertisement

কিন্তু সব সমালোচনা সয়ে আপন মনেই নিজের কাজটা ঠিকঠাক করে যান পূজারা। কোহলি-রাহানদের মতো তারকা ব্যাটসম্যানদের আড়ালে থাকলেও ভারতের টপ ও মিডলঅর্ডার ব্যাটিংয়ে মেলবন্ধন ঘটানোর কঠিন দায়িত্বটা সারতে হয় পূজারাকেই। আর যেদিন কোহলিরা ব্যর্থ সেদিন দল রক্ষায় এগিয়ে আসতে হয় তাকেই।

অ্যাডিলেডে প্রথম ইনিংসের মত সিডনিতেও ব্যর্থ হয়েছেন কোহলি-রাহানে। ভারত অধিনায়ক সাজঘরে ফিরেছেন ২৩ করে। রাহানে আউট হয়েছেন ১৮ করে। ব্যর্থতা বজায় রেখে ওপেনার লোকেশ রাহুল ফিরেছেন ৯ রানে। তারকা ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার দিনে আবারও ব্যাট চওড়া হয়েছে পূজারার। পাশে পেয়েছেন মেলর্বোন টেস্টে অভিষেকেই চমক দেখানো ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়াল।

টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৮তম সেঞ্চুরির পথে নিজের মতই করে খেলেছেন পূজারা। ১৩০ করতে খেলেছেন ২৫০ বল। ১৬ চার মারলেও স্ট্রাইকরেট ঠিক ৫২! সিরিজে এটি পূজারার তৃতীয় সেঞ্চুরি!

আগারওয়াল ফিরেছেন টেস্টে টানা দ্বিতীয় অর্ধশতক হাঁকিয়ে। ফেরার আগে খেলেছেন ১১২ বলে ৭৭ রানের ইনিংস। আগের টেস্টে আগারওয়ালের সঙ্গে ওপেনিং করা হনুমা বিহারি আবারও ফিরেছেন মিডলঅর্ডারে। ফিরেই দিন শেষে অপরাজিত ৩৯ রানে।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri