izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

চকরিয়া কেন্দ্রীয় হরি মন্দিরে চারদিন ব্যাপী মহোৎসব

hh.jpg

মুকুল কান্তি দাশ,চকরিয়া(২৩ জানুয়ারী) ::‍‍ কক্সবাজারের চকরিয়া কেন্দ্রীয় হরি মন্দিরের ৩৩ তম প্রতিষ্টা বার্ষিকী উপলক্ষে গীতাপাঠ, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতা, ধর্মসভা ও ষোড়শ প্রহরব্যাপী মহানামযঞ্জ অনুষ্টানের আয়োজন করেছে চিরিংগা হিন্দুপাড়া যুবকল্যান সমিতি।

বুধবার সন্ধ্যা থেকে চিরিংগা হিন্দুপাড়া কেন্দ্রীয় কেন্দ্রীয় হরি মন্দির প্রাঙ্গনে গীতাপাঠ ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতার মধ্য দিয়ে চারদিন ব্যাপী অনুষ্টান শুরু হয়েছে।

চকরিয়া কেন্দ্রীয় হরি মন্দির মহোৎসব উদযাপন পরিষদের অন্যতম কর্মকর্তা ও যুবকল্যান সমিতির সভাপতি ধনরঞ্জন দাশ জানান,প্রতি বছরের ন্যায় এবছরেও হরিমন্দিরের প্রতিষ্টা বার্ষিকী উপলক্ষে চিরিংগা যুব কল্যান সমিতি চারদিন ব্যাপী বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্টানের আয়োজন করে আসছে।

এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার সন্ধ্যা গীতা পাঠ, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতা এবং রাতে আলোচনা সভা অনুষ্টিত হবে। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চকরিয়া পৌরসভার মেয়র মো.আলমগীর চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় শুরু হয়ে সাতশত তুলশীদান, সন্ধ্যায় মহানামযঞ্জের শুভ অধিবাস এবং রাত ৮টায় ধর্মীয় আলোচনা সভা। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন কক্সবাজার-১ আসনের নব-নির্বাচিত এমপি আলহাজ্ব জাফর আলম, ধর্মীয় আলোচনা করবেন শ্রীমৎ স্বামী উমানন্দ ব্রক্ষচারী।

অনুষ্টানে সভাপতিত্ব করবেন মহোৎসব উদযাপন পরিষদের সভাপতি ডাক্তার তেজেন্দ্র লাল দে।

এতে আরো উপস্থিত থাকবেন- হরি মন্দির উন্নয়ন কমিটির উপদেষ্টা হারাধন দাশ, নন্দরাম ধর, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ চকরিয়া উপজেলা শাখার সভাপতি রতন বরণ দাশ, মহোৎসব উদযাপন পরিষদে সাধারণ সম্পাদক মিলন কান্তি দাশ, সহ-সভাপতি বাবুল কান্তি দাশ, অর্থ-সম্পাদক সমীর দাশ, হরি মন্দির উন্নয়ন কমিটির সভাপতি প্রদীপ দাশ, সাবেক কাউন্সিলর লক্ষণ কান্তি দাশ, পুজা কমিটির সভাপতি তপন কান্তি দাশসহ বিভিন্ন ধর্মীয় সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।

শুক্রবার ভোররাত থেকে শুরু হবে ষোড়শ প্রহরব্যাপী মহানামযঞ্জ। এতে নামসুধা পরিবেশন করবেন-শ্রী কাকুগোপাল সম্প্রদায়, শ্রী গুরু অচ্যুতানন্দ সম্প্রদায়, বাসুদেব সম্প্রদায়, শ্রী নন্দদুলাল সম্প্রদায় ও শ্রী নন্দগোপাল সম্প্রদায়। রবিবার ভোরে পূর্ণাহুতি ও বৈষ্ণব বিদায়ের মাধ্যমে অনুষ্টানের সমাপ্তি ঘটবে।

এদিকে, চারদিন ব্যাপী মহোৎসব উপলক্ষে হরি মন্দিরের আশপাশে মেলা বসতে শুরু করেছে। মহোৎসবকে ঘিরে সনাতন সম্প্রদায়ের ভক্তদের মাঝে ব্যাপক উৎফুল্লতা বিরাজ করছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri