izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

ইউনিপেটুইউর চেয়ারম্যান-এমডির ১২ বছর কারাদণ্ড

unipay2you.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(২৩ জানুয়ারী) :: অর্থপাচারের একটি মামলায় মাল্টিলেভেল মার্কেটিং কোম্পানি ইউনিপেটুইউ বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোহাম্মদ মুনতাসির হোসেনসহ ছয়জনের ১২ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। গতকাল ঢাকার ৩ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডিত অন্য আসামিরা হলেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান মো. শহিদুজ্জামান শাহীন, নির্বাহী পরিচালক মাসুদুর রহমান, জিএম জামশেদ রহমান, উপদেষ্টা মঞ্জুর এহসান চৌধুরী ও ইউনিল্যান্ড লিমিটেডের পরিচালক এইচএম আরশাদ উল্লাহ। এদের মধ্যে শহিদুজ্জামান শাহীন, মাসুদুর রহমান ও মঞ্জুর এহসান চৌধুরী বর্তমানে পলাতক।

২৩ জানুয়ারী রায় ঘোষণাকালে কারাগারে থাকা দুই আসামি মুনতাসির হোসেন ও জামশেদ রহমান এবং জামিনে থাকা এইচএম আরশাদ আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পর আদালত আরশাদের জামিন বাতিল করে তাকে দণ্ড পরোয়ানামূলে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

রায়ে আসামিদের কারাদণ্ডের পাশাপাশি ২ হাজার ৭০২ কোটি ৪১ লাখ ১১ হাজার ৭৮৪ টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে, যা রাষ্ট্র পাবে। ১৮০ দিনের মধ্যে অর্থদণ্ডের টাকা রাষ্ট্রের অনুকূলে জমা প্রদানের জন্য আসামিদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া রায়ে মামলাসংক্রান্ত বিভিন্ন হিসাবে অবরুদ্ধ থাকা ৪২০ কোটি ১৪ লাখ ২৯ হাজার ৬৬৩ টাকা রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এছাড়া মামলার চার্জশিটে উল্লিখিত ইউনিপেটুইউ বাংলাদেশ লিমিটেড নামীয় এবং আসামিদের দ্বারা পরিচালিত সব সম্পত্তি রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আসামিপক্ষের আইনজীবী ফরহাদ হোসেন নিয়ন জানান, মাল্টিলেভেল মার্কেটিং কোম্পানি ইউনিপেটুইউ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সারা দেশে ১৪৫টি মামলা করা হয়। এরই মধ্যে চারটি মামলায় আসামিরা খালাস পেয়েছেন। আর পঞ্চম মামলায় তাদের সাজা হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, অবৈধভাবে প্রায় ১ হাজার ৩৫০ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে ২০১১ সালের ২৫ জানুয়ারি দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক তৌফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় মামলাটি করেন। মামলাটি তদন্ত করে ওই বছরের ২২ জুন আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন তিনি। ২০১৫ সালের ৬ জুলাই আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন আদালত। মামলাটিতে চার্জশিটভুক্ত ২৭ জন সাক্ষীর মধ্যে ২৩ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন আদালত।

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri