নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে মায়ানমারের সেনা সদস্য আটক

myanmar-army-arrest-24.1.jpg

আবদুর হামিদ,নাইক্ষ্যংছড়ি(২৫ জানুয়ারী) :: কক্সবাজারের সীমান্তবর্তী পার্বত্য নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দৌছড়ী ইউনিয়নের লেবুছড়ি সীমান্ত থেকে মায়ানমারের এক সেনাবাহিনীর সদস্যকে আটক করে স্থানীয় জনতা।

বৃহস্পতিবার(২৪জানুয়ারি) বিকাল ৫টার ৪৫মিনিটের সময় আন্তর্জাতিক সিমারেখা অতিক্রম করে বাংলাদেশের ভূখ-ে (৪৯ নম্বর সিমান্ত পিলার) পাহাড়ি এলাকায় ঘোরাফেরা করার সময় স্থানীয় জনতা তাকে দেখতে পায়।

এ সময় লোকজন জড়ো হয়ে উক্ত সেনা সসদস্যকে আটক করে ভাল্লুকখাইয়া বিজিবি ক্যাম্পে সোপর্দ করেন। আটককৃত ওই সেনা সদস্যের নাম অংবোথিন। তার বাড়ি মিয়ানমারের ইয়াংগুনে।

জিজ্ঞাসাবাদে সে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ২৮৭ ব্যাটালিয়নের সদস্য বলে জানা যায়। নাইক্ষ্যংছড়ির দৌছড়ী ইউপির লেবুছড়ি সীমান্তের ওপারে বেন্ডুলা ক্যাম্পে সংযুক্ত করে তাকে প্রেষণে দায়িত্ব দেওয়া হয়। গত দু’দিন আগে সে ক্যাম্প থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে বলে জানান।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে তাকে আটক করা হয়। আটক সেনা সদস্যকে নাইক্ষ্যংছড়িস্ত বিজিবির ১১ ব্যাটালিয়নে নিয়ে এসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

বিজিবির কক্সবাজার সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার কর্নেল বায়েজিদ খান জানান, জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত ব্যক্তি নিজেকে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সদস্য বলে জানিয়েছে। বেন্ডুলা ক্যাম্পে কাজ ভাল না লাগায় সে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে।

তিনি আরো বলেন, আমরা এতদিন জানতাম মিয়ানমার সিমান্তের বিজিপির সদস্যরা থাকে। তাদের পেছনে সেনাবাহিনী অবস্থান। কিন্তু উক্ত সেনা সদস্য ধরা পড়ার পর দেখছি মিয়ানমার সিমান্তের সেনাবাহিনীর সদস্যরা বিজিপির পোষাক পরে দায়িত্ব পালন করছেন।

অপরদিকে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার সকাল থেকে মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও আরাকান আর্মির মধ্যে নতুন করে সংঘর্ষের সূত্র পাত হয়েছে। রাখাইনেই কিয়াকাতা এলাকা ও বাংলাদেশ সিমান্তের ৪১-৪২ নম্বর পিলারের উল্টোদিক থেমে থেমে গুলি বর্ষনের শব্দ শোনা যাচ্ছে দিনভর।

Share this post

PinIt
scroll to top