izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

চকরিয়ায় বনাঞ্চল থেকে পাঁচটি সেলোমেশিন পাইপ জব্দ

Chakaria-Picture-26-01-19-..jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া(২৬ জানুয়ারী) :: চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে অবৈধভাবে বালি উত্তোলনের অপরাধে পাঁচটি সেলুমেশিন ও সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে। বিজিবি ও বন বিভাগের যৌথ অভিযানকালে জড়িতরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

শনিবার সকালে খুটাখালীর সংরক্ষিত বনাঞ্চল মধুশিঁয়া এলাকায় অবৈধ বালু পয়েন্টে এ অভিযান চলে।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের খুটাখালীস্থ ফুলছড়ি রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) বেলায়েত হোসেন ও রেঞ্জ কর্মকর্তা ছৈয়দ আবু জাকারিয়া। অভিযানে অংশনেন বিজিবি একটি দল, সকল বনবিট কর্মকর্তা ও বনপ্রহরী।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের রহিম মেম্বার, বাবুল, নাছির, খুটাখালীর সাইফুল, আনোয়ার হোছন মেম্বার, বশির ড্রাইভার, পেটান, জয়নাল, কামাল, হুমাইয়ুন, সালাহ উদ্দিন, বেলাল, শামসু ও মিন্টুসহ ২০-২৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ চক্র বর্নিত এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছিল। এতে ব্যবহার করা হয় ডজনাধিক নিষিদ্ধ সেলুমেশিন। বিষয়টি ইতিপূর্বে পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজারে অবহিতও করা হয়।

অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত ফুলছড়ি রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা ছৈয়দ আবু জাকারিয়া বলেন, কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের সংরক্ষিত বনাঞ্চলের চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী বনবিটের মধুশিঁয়া পয়েন্টে অসাধু একটি চক্র অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করে বিক্রি করে ব্যবসা করে আসছিলেন।

বিষয়টি বন বিভাগের নজরে আসলে শনিবার বিজিবি সহায়তায় সেখানে অভিযান চালিয়ে ৫টি সেলুমেশিন ও ৫০ফুট পাইপ জব্ধ করা হয়েছে। জব্দকৃত এসব মালামাল রেঞ্জ কার্যালয়ে জব্দ রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে এবং সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে কেউ বালু উত্তোলন করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share this post

PinIt
scroll to top