izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

সবাই মিলে মাদকমুক্ত টেকনাফ গড়বই : বদি

t26.jpg

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(২৬ জানুয়ারি) :: মাদকমুক্ত টেকনাফ গড়তে হলে আলেম সমাজের গুরুত্ব তুলে ধরেছেন সাবেক এমপি আব্দুর রহমান বদি।

তিনি মাদক কারবারীদের নিকট থেকে দ্বীনি ও সামাজিক অনুষ্ঠানে অনুদান না নেওয়ার আহবান জানিয়ে আরো বলেন, আধুনিক ও মাদকমুক্ত টেকনাফ গড়ে তোলে জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচনী অঙ্গিকার বাস্তবায়নে আলেম সমাজসহ সর্বস্তরের জনসাধারণের আন্তরিক সহায়তা কামনা করছি।

২৬ জানুয়ারি বাদে জোহর টেকনাফ উপজেলা আদর্শ কমপ্লেক্স মাঠে আয়োাজিত দোয়া শুকরিয়া সভা ও মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন টেকনাফ আল জামিয়া আল ইসলামিয়া মাদ্রাসার প্রধান পরিচালক মাওলানা মুফতি কেফায়েত উল্লাহ শফিক।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাওলানা হাফিজুর রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, সদ্য সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আব্দুর রহমান বদি, টেকনাফ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জাফর আহমদ, ভাইস-চেয়ারম্যান মাওঃ রফিক উদ্দীন, টেকনাফ পৌর মেয়র হাজী মোঃ ইসলাম।

এছাড়া সাবেক উপজেলা পরিষদ ভাইস-চেয়ারম্যান এইচএম ইউনুছ বাঙ্গালী, আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব সোনা আলী,প্যানেল মেয়র-১ মাওঃ মুজিবুর রহমান, বাহারছড়া উইপি চেয়ারম্যান মাওঃ আজিজ উদ্দীন, টেকনাফ সদর ইউপি চেযারম্যান মোঃ শাহজান মিয়া, সদর ইউপি ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার হাফেজ মাওঃ ছৈয়দুল ইসলামসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উক্ত সভায় অন্যান্য বক্তাদের পাশাপাশি সাবেক এমপি আব্দুর রহমান বদি বলেন, মাদক তথা ইয়াবার কারণে টেকনাফে অনেক পরিবারের মা, বাবা, স্ত্রী, সন্তান শান্তিতে ঘুমাতে পারছে না। অনেক তাজাপ্রাণ বিসর্জন দিতে হয়েছে। কোথাও গেলে ইয়াবার বদনাম নিয়ে লজ্জায় মাথা নিচু করে থাকতে হয়।

আমরা এ বদনামের ভাগি হচ্ছি। ইয়াবা যুব সমাজকে নষ্ট করছে, দেশ ও জাতিকে ধ্বংস করছে।’ যে কোন মাদকের বিরুদ্ধে সরকার হার্ডলাইনে রয়েছে। ইয়াবামুক্ত টেকনাফ গড়তে আলেম সমাজের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। এই আলেম সমাজের মাধ্যমে মহান আল্লাহর কাছে দোয়া কামনা করছি। আমাদের একটিই কলঙ্ক সেটা হচ্ছে ইয়াবা।

এই বদনাম মুছতে সবোইকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে।’ ‘কোন ইয়াবা চোরাচালানকারী যদি দ্বীনি মাহফিলে গরু, ছাগল ও অনুদান দেয় সেটি গ্রহণ করবেন না। ইয়াবা পাচারকারীকে সমাজ থেকে ধিক্কার জানান। প্রত্যেক মসজিদ ও মাদ্রাসায় ইয়াবা প্রতিরোধের কথা বলি। ইয়াবা থেকে মুক্ত করতে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি। গ্রামে গ্রামে যেসব ইয়াবা পাচারকারী রয়েছে, তাদের তালিকা করে প্রশাসনকে দেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।’

বদি বলেন, ‘২০১৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্টুভাবে সম্পন্ন সম্ভব হয়েছে। এজন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানায়। এছাড়া উখিয়া-টেকনাফের দায়িত্বে থাকা বিভিন্ন কর্মকর্তাদের এই মাহফিল থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

মাহাফিল শেষে প্রধান বক্তা মাওলানা হাফিজুর রহমান প্রধানমন্ত্রীসহ দেশ ও জাতীর কল্যাণ এবং টেকনাফকে ইয়াবামুক্ত করার জন্য বিশেষ দোয়া করেন।

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri