টেকনাফে গ্যারেজ মালিকের সাথে বেড়াতে গিয়ে হামলার শিকার সহকারীর মৃত্যু

Teknaf-Pic-B-29-01-19.jpg

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(২৯ জানুয়ারী) :: টেকনাফের দুই টমটম গ্যারেজ মালিক পাশ^বর্তী এলাকায় বেড়াতে যায়। এদের মধ্যে এক সহকারী হামলায় গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে।

সুত্র জানায়, ২৯ জানুয়ারী সকালে উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের বটতলী এলাকা হতে টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উলুবনিয়া পূর্ব পাড়ার মোহাম্মদ কালুর পুত্র ও জাহাঙ্গীর গ্যারেজের সহকারী মোহাম্মদ সোহেল (১৮) কে মূমুর্ষ এবং রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে থাইংখালী এমএসএফ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়।

দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। উখিয়া থানা পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে পোস্ট মর্টেমের জন্য মর্গে প্রেরণ করেন।

এদিকে স্থানীয় সুত্রে জানা যায়,গত ২৮ জানুয়ারী রাত ৭টায় টেকনাফের হোয়াইক্যং উলুবনিয়ার ডেইল পাড়ার কবির আহমদের পুত্র ও রাস্তার মাথা জাহাঙ্গীর গ্যারেজের মালিক জাহাঙ্গীর আলম (৩০) ও তার সহকারী পূর্ব পাড়ার মোহাম্মদ কালুর পুত্র এবং গ্যারেজের শেয়ার হোল্ডার ও সহকারী মোহাম্মদ সোহেল (১৮)কে নিয়ে উখিয়া পালংখালীর বটতলীতে বেড়াতে যায়।

সকালে সোহেলকে অজ্ঞান ও মূমুর্ষ অবস্থায় জাহাঙ্গীর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। নিহতের পুরুষাঙ্গ, গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে এবং নাক দিয়ে রক্ত ঝরছে। গ্যারেজ সহকারী নিহতের পর মালিক জাহাঙ্গীর পালিয়ে যায়।

এদিকে গত দেড় মাস পূর্বে এই গ্যারেজের মালিকানা নিয়ে জাহাঙ্গীর-সোহেলের মধ্যে বাক-বিতন্ডা ও মারামারীর উপক্রম হয়।

হয়ত এই ঘটনার সুত্রধরে নৃশংস হামলার শিকার হয়ে সোহেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় বলে আশংকা করা হচ্ছে। সোহেলের শোকাহত স্বজন এই মুর্হুতে বিস্তারিত কিছু জানাতে পারছেনা।

Share this post

PinIt
scroll to top