izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

মহাকাশ থেকে পৃথিবীতে ধেয়ে আসছে বিশাল আকৃতির উল্কা !

ulka-asteroid-hitting-earth.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৯ ফেব্রুয়ারি) :: ২০১৯ সালের জুন মাসের শেষের দিকে পৃথিবীতে একটি বিপর্যয় ঘটতে পারে। মহাকাশ বিজ্ঞানীদের আশঙ্কা মতে বিশাল আকৃতির উল্কা ধেয়ে আসতে পারে পৃথিবীর দিকে।

এর আগে ১৯০৮ সালের ৩০ জুন সাইবেরিয়ার বায়ুমণ্ডলে বিল্ডিং আকৃতির একটি বস্তু আকাশ থেকে এসে পড়ে। মহাজাগতিক এই বস্তুটি সেখানেই বিস্ফোরিত হয়। ফলে তুঙ্গুস্কা নদীর আশেপাশের ৮০০ বর্গমাইল এলাকা জুড়ে গাছপালা নিশ্চিহ্ন হয়ে যায়। এই ঘটনার নাম বিজ্ঞানীরা রেখেছিলেন ‘তুঙ্গুস্কা এফেয়ার’।

এ ঘটনাটি কম জনবহুল স্থানে ঘটায় কেউ হতাহত হয়নি। কিন্তু তুঙ্গুস্কা মহাজাগতিক বিস্ফোরণ মানব ইতিহাসের সবচেয়ে প্রভাবশালী ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনুমান করা হয় যে, ওই মহাজাগতিক বস্তুটি ছিলো একটি বিটা টাউরিড।

টাউরিড হল উল্কা বৃষ্টির মতোই বিষয় যা প্রথমে জুন মাসের শেষের দিকে এবং পরে অক্টোবরের শেষ বা নভেম্বরের শুরুর দিকে ঘটে থাকে। জুন মাসের উল্কাগুলিকে বিটা বলা হয়। দিনের বেলায় দেখা যায় তাদের।

লস অ্যালামোস ন্যাশনাল ল্যাবরেটরির পদার্থবিজ্ঞানী মার্ক বসলাফের নতুন সূত্র অনুযায়ী, সাইবেরিয়ায় গাছের পতনের যে ধরণটি দেখা গেছিল তা আকাশের একই এলাকার টাউরিড উল্কা প্রবাহের মতোই দেখতে। লন্ডনের ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির পদার্থবিজ্ঞানী পিটার ব্রাউন ও বসলাফ এই ডিসেম্বরেই ওয়াশিংটনে আমেরিকান জিওফিজিক্যাল ইউনিয়নের সভায় একটি উপস্থাপনা দিয়েছেন, যেখানে তারা এই আগামী জুনে একটি বিশেষ পর্যবেক্ষণ অভিযানের আহ্বান জানিয়েছেন। এই পর্যবেক্ষণে তুঙ্গুস্কা ক্লাস বা টাউরিডসহ বৃহৎ বস্তুগুলিকে খতিয়ে দেখা হবে ।

কয়েক বছর ধরে, পৃথিবী টাউরিড প্রবাহের সবচেয়ে ঘন ক্লাস্টারের কাছাকাছি দিয়েই অতিক্রম করছে এবং ২০১৯ সালেও এটাই হতে চলেছে। বিজ্ঞানীরা বলছেন যে ১৯৭৫ সালের পর থেকে ২০১৯ সালেই সম্ভবত মহাজাগতিক বস্তুর ধেয়ে আসা দেখতে পাওয়া যাবে। বসলাফ ও বাউন বলেন, ‘যদি তুঙ্গুস্কার বস্তুটি বিটা টাউরিড প্রবাহের সদস্য হয়, তবে ২০১৯ সালের জুনের শেষ সপ্তাহটিতে তুঙ্গুস্কার মতো সংঘর্ষ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে চরম।’

তাঁরা আরও জানান, ‘আমরা আরেকটি তুঙ্গুস্কা বিস্ফোরণের পূর্বাভাস দিচ্ছি না, যদিও বিটা টাউরিডে ছোট NEO (পৃথিবীর কাছাকাছি বস্তু) বৃদ্ধির ফলে পরের বছর তুঙ্গুস্কা বার্ষিকী হতে চলেছে কিনা তা বলা যাচ্ছে না এখনই।’

তবে কেউই স্পষ্টভাবে জানাননি যে ২০১৯ সালে উল্কা করতে পারে কিনা। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, এত বড় মহাবিশ্বে এটি পৃথিবীতে আঘাত করবে এমন ভাবার কারণ নেই।

টাউরিড স্ট্রিমকে সূর্যের চারপাশে একটি আংটি হিসাবে একে কল্পনা করা যেতে পারে। এই আংটিটি কিন্তু পৃথিবীর কক্ষপথের সমান সমান নয়। পৃথিবী বছরে দুবার টাউরিড প্রবাহকে অতিক্রম করে। জুন মাসে সূর্য থেকে দূরে ভ্রমণ করা টাউরিড উপাদানকে ছেদ করে যায়, এবং অক্টোবর মাসে সূর্যের দিকে ভ্রমণ করা উপাদানগুলো ছেদ করে।

আমরা সাধারণত অক্টোবর টাউরিডগুলিকে দেখতে পাই। জুন টাউরিড রোদে ঝাপসা হয়ে যায়, যদিও তা রাডারে ধরা পড়ে।

সূত্র: এনডিটিভি অনলাইন

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri