টি-টোয়েন্টি সিরিজে রুদ্ধশ্বাস ম্যাচ হারল ভারত : সিরিজ নিউজিল্যান্ডের

nz-v-ind-10.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(১০ ফেব্রুয়ারি) :: ওয়ানডে সিরিজে হয়নি তো কি হয়েছে! সফরকারী ভারতকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে এসে হারিয়ে দিল নিউজিল্যান্ড। শেষ ম্যাচে মাঠে নামার আগে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ১-১ ব্যবধানে সমতা বিরাজ করলেও, হ্যামিল্টনে সিরিজ নির্ধারণী শেষ ম্যাচে ভারতকে ৪ রানে হারিয়ে ওয়ানডে সিরিজ হারের বদলা নিয়ে নিল স্বাগতিকরা।

সিরিজে সমতা থাকায় দু’দলেরই সামনেই সুযোগ ছিল সিরিজ নিশ্চিত করার। সে লক্ষ্যে সিডন পার্কে টস জিতে স্বাগতিকদের ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা। দ্বিতীয় ম্যাচের ব্যাটিং ব্যর্থতা এদিন কাটিয়ে ওঠে দারুণ শুরু পায় নিউজিল্যান্ড। টিম সেইফার্ট ও কলিন মুনরোর সৌজন্যে ৮০ রানের উড়ন্ত সূচনা পায় কিউইরা।

কুলদীপ যাদব সেইফার্টকে (৪৩ রান) ফিরিয়ে উদ্বোধনী জুটি ভাংলেও, থামাতে পারেনি কিউই ব্যাটসম্যানদের। মুনরো তুলে নেন ফিফটি। মাত্র ৪০ বলে ৫ চার-৫ ছক্কায় ৭২ রান করা মুনরোকেও সাজঘরে ফেরান লেফট আরম চাইনাম্যান। তবে পান্ডিয়া–ভ্রাতৃদ্বয় (হার্দিক পান্ডিয়া ও ক্রুনাল পান্ডিয়াকে) ছাতুপেটা করে রান তুলতে থাকে বাকি ব্ল্যাকক্যাপস ব্যাটসম্যানরা। শেষ দিকে, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ও ড্যারিল মিচেলের ছোট দুটি ঝড়ো ইনিংসের উপর ভর করে ২১২ রানের বিশাল সংগ্রহ পায় নিউজিল্যান্ড।

সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে বিপাকে পড়েছিল ভারত। শেষে লজ্জাজনকভাবে হার মানতে হয় তাদের। এদিন অবশ্য বড় লক্ষ্য তাড়া করে নেমে ভড়কে যায়নি ভারতীয়রা। দলীয় মাত্র ৬ রানে শিখর ধাওয়ান (৫ রান) ফিরে গেলেও, বিজয় শঙ্করকে নিয়ে ৭৫ রানের জুটি গড়ে চাপ সামাল দেন রোহিত শর্মা। রোহিত কিছুটা মন্থর গতিতে ব্যাটিং চালালেও শঙ্কর স্বভাবসুলভ মারকাটারি ব্যাট চালিয়ে যান। যদিও ব্যক্তিগত ৪৩ রানে ড্যারিল মিচেলের বলে সেইফার্টের গ্লাভসবন্দী হয়ে ফিরে যান তিনি।

এরপর ঋষভ পন্থ (২৮ রান), হার্দিক পান্ডিয়া (২১ রান) ঝড়ের গতিতে রান তুললেও, জয়ের জন্য তা যথেষ্ট হয়নি। শেষতক জয় থেকে মাত্র ৪ রান দূরে থাকতেই শেষ হয় টিম ইন্ডিয়ার ইনিংস। এতে করে ওয়ানডের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ের স্বপ্ন ভাঙে ভারতের।

ফল: নিউজিল্যান্ড ৪ রানে জয়ী।
সিরিজ: নিউজিল্যান্ড ২-১ ভারত
ম্যাচ সেরা: কলিন মুনরো
সিরিজ সেরা: টিম সেইফার্ট 

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri