মঙ্গল গ্রহে বসতি করতে যাওয়া ল্যান্সড্রপ কোম্পানিকে দেউলিয়া ঘোষনা

mars-town.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(১২ ফেব্রুয়ারী) :: মঙ্গল গ্রহে যেতে হল না। পৃথিবীতেই মঙ্গলের কোপে পড়লেন বাস ল্যান্সড্রপ। লাল গ্রহে মানুষ পাঠিয়ে সেখানে বসতি স্থাপনের দাবি করেছিলেন তিনি। এজন্য মারস ওয়ান ভেঞ্চার নামে নতুন কোম্পানিও খুলেছিলেন। সেই কোম্পানিকে দেউলিয়া ঘোষণা করা হয়েছে।

সুইজারজ্যান্ডের ব্যাসেল শহরের প্রশাসন, তাদের ওয়েবসাইটে গত মাসের ১৫ তারিখ এই সংক্রান্ত নোটিস পোস্ট করে কোম্পানির অস্তিত্ব খারিজ করে দিয়েছে। ল্যান্সড্রপও তার কোম্পানি দেউলিয়া হওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। তবে তিনি এখনও সমস্যা সমাধানের পথ খুঁজছেন বলে দাবি করেছেন।

তবে কোম্পানির অলাভজনক শাখাটি খোলা থাকলেও বিনিয়োগের অভাবে ধুঁকছে। দীর্ঘ দিন ধরেই ল্যান্সড্রপের কোম্পানি মারস্ ওয়ান ভেঞ্চার বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতি, মানুষকে মঙ্গলে পাঠানোর নামে প্রতারিত করে মোটা টাকা হাতানোর অভিযোগ উঠছিল। এ ব্যাপারে প্রশাসন এবং পুলিশের দ্বারস্থও হয়েছিলেন কয়েকজন সমাজকর্মী। সেই মতো তদন্ত শুরু করে প্রশাসন। তারপরই ওই কোম্পানিটিকে দেউলিয়া ঘোষণা করা হয়।

মারস্ ওয়ান ভেঞ্চার দাবি করেছিল, তারা পৃথিবী থেকে ১০০ জনকে শর্টলিস্ট করেছে যাদের তারা মঙ্গলে পাঠাবে বসতি স্থাপনের জন্য। সেখানে তারা গ্রহের আবহাওয়া অনুপাতে বাড়ি, কৃষিক্ষেত্র, গাড়ির ব্যবস্থা করে দেবে। এজন্য মোটা টাকা দিয়ে ফর্ম পূরণ করতে হয়েছিল উৎসুক পৃথিবীবাসীকে।

তবে যারা মঙ্গলে যাবেন তারা কেউ আর পৃথিবীতে ফিরে আসতে পারবেন না বলে সাফ নির্দেশ দিয়েছিল মারস ওয়ান ভেঞ্চার। এই নিয়েই বিতর্ক শুরু হয়েছিল। তাছাড়া মঙ্গলে যাওয়ার নির্দিষ্ট দিন, মঙ্গলের বাসিন্দা নির্বাচনের প্রক্রিয়া প্রতিনিয়ত বদল করা নিয়েও আপত্তি তুলেছিলেন অনেকে।

Share this post

PinIt
scroll to top