রামুর ডাকভাঙ্গা ও মৈষকুম প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

Ramu-Pic-Dhakbanga-02.03.19.jpg

সোয়েব সাঈদ,রামু(২ মার্চ) :: রামু উপজেলার দূর্গম পাহাড়ী জনপদ ডাকভাঙ্গা ও মৈষকুম গ্রামে বেসরকারি সেবামূলক সংস্থা ‘ডাকভাঙ্গা বাংলাদেশ’ শিক্ষা প্রকল্পের উদ্যোগে পরিচালিত মৈষকুম ওসমান সরওয়ার প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ডাকভাঙ্গা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

শনিবার (২ মার্চ) রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের ডাকভাঙ্গা গ্রামে ডাকভাঙ্গা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, ‘ডাকভাঙ্গা বাংলাদেশ’ এর কান্ট্রি রি-প্রেজেন্টেটিভ মাসুম বিল্লাহ খান। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, ‘ডাকভাঙ্গা বাংলাদেশ’ এর প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর মো. জুয়েল তালুকদার।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, নাইক্ষ্যংছড়ি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাসরিন সুলতানা, সিনিয়র শিক্ষক রহমত ছালাম, কাউয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আলী হায়দার, সিনিয়র শিক্ষক ওসমান গনি, ছৈয়দুল আলম, মো. আবদুল্লাহ, দেবাশীষ চক্রবর্তী, কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম নাহিদ, দাতা সদস্য নজরুল ইসলাম, সাংবাদিক সোয়েব সাঈদ, ছাত্রলীগ নেতা ছানা উল্লাহ বাবুল প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে ‘ডাকভাঙ্গা বাংলাদেশ’ এর প্রশাসনিক কর্মকর্তা রোকনুজ্জামান খান, ডাকভাঙ্গা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মাস্টার আবুল কাশেম, প্রধান শিক্ষক মো. সলিম উল্লাহ, সহকারি শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম, আলমগীর আলম, মার্জিয়া বেগম, আরেফা আকতার, জান্নাতুল বকেয়া, মৈষকুম ওসমান সরওয়ার প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মো. আবদুল খালেক, সহ সভাপতি সাবেক মেম্বার আবদু শুক্কুর, প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম, সহকারি শিক্ষক জুর্মি বড়–য়া, সালমা আকতার, রাবেয়া বেগম, শিউলী রানী দে, আবদুল হামিদ, সালমা আক্তার প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ বলেন, ‘ডাকভাঙ্গা বাংলাদেশ’ রামুর কাউয়ারখোপ এবং পাশর্^বর্তী কচ্ছপিয়া ইউনিয়নে অবহেলিত শিশুদের শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেয়ার পাশাপাশি, ক্রীড়া-সংস্কতি চর্চার মাধ্যমে এদের সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলছে।

এজন্য তিনি বেসরকারি সংস্থা ‘ডাকভাঙ্গা বাংলাদেশ’ এ প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এবং এ দুটি বিদ্যালয়কে ভবিষ্যতে আরো উন্নত ও প্রয়োজনে সরকারিকরণ করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।

‘ডাকভাঙ্গা বাংলাদেশ’ এর প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর মো. জুয়েল তালুকদার জানান, শনিবার সকালে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা সম্পন্ন হয়। বিকালে পুরস্কার বিতরণ ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। এতে মৈষকুম ওসমান সরওয়ার প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ডাকভাঙ্গা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী এছাড়াও আমন্ত্রিত অতিথি, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, অভিভাবকবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri