izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের পিআইসি সভা অনুষ্ঠিত

IMG_9410.jpg

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি(১৪ মার্চ) :: কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চলমান প্রকল্প ‘কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বহুতল অফিস ভবন নির্মাণ’ এর ২য় প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসি) সভা ১৪ মার্চ সকাল সাড়ে ১০টায় এবং ‘কক্সবাজার শহরস্থ ঐতিহ্যবাহী লালদিঘী, গোলদিঘী ও বাজারঘাটা পুকুর পুনর্বাসনসহ ভৌত সুযোগ সুবিধার উন্নয়ন’ ১ম প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসি) সভা দুপুর ১২টায় কউক সভাকক্ষে কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে: কর্নেল (অব:) ফোরকান আহমদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সভাপতির বক্তব্যে কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে: কর্নেল (অব:) ফোরকান আহমদ বলেন, যেহেতু আমাদের নিজস্ব কোন অফিস ভবন নাই তাই নির্দিষ্ট সময় অর্থাৎ জুন ২০২০ এর মধ্যে প্রকল্পের কাজ সমাপ্ত করা খুবই জরুরী। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী এবং সচিব মহোদয়কে কথা দিয়েছি যেকোনভাবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ সমাপ্ত করবো।

তাই নির্ধারিত সময়ে কাজ সমাপ্ত করার জন্য প্রকল্প পরিচালক, তিনি স্থাপত্য অধিদপ্তর, কক্সবাজার গণপূর্ত বিভাগ এবং ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ইঞ্জিনির্য়্সাসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সার্বিক সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।

তাছাড়া কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অপর একটি চলমান প্রকল্প ‘কক্সবাজার শহরস্থ ঐতিহ্যবাহী লালদিঘী, গোলদিঘী ও বাজারঘাটা পুকুর পুনর্বাসনসহ ভৌত সুযোগ সুবিধার উন্নয়ন’ এর ১ম পিআইসি সভায় তিনি বলেন কক্সবাজার শহরের ঐতিহ্য সংরক্ষণ এবং স্থানীয় জনসাধারণের বিনোদনের জন্য এ প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয়েছে।

সভায় প্রকল্প পরিচালক লে: কর্নেল মোহাম্মদ আনোয়ার উল ইসলাম বলেন, প্রকল্প ২টি যথাসময়ে বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তর/সংস্থার সাথে যথাযথ সমন্বয় এবং কার্য তদারকি অব্যাহত আছে। কক্সবাজার গণপূর্ত বিভাগ এবং ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সাথে সমন্বয়পূর্বক যথাসময়ে প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য নিরলস চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলেন জানান তিনি।

এছাড়াও তিনি উক্ত প্রকল্প যথাসময়ে বাস্তবায়নের জন্য গণপূর্ত বিভাগ ও স্থাপত্য অধিদপ্তরসহ সকলের সার্বিক সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।

লালদিঘী, গোলদিঘী ও বাজারঘাটা পুকুরের পাড় বাধাই, পুকুর পুন:খনন, ওয়াকওয়ে নির্মাণ, রিটেনিং ওয়াল নির্মাণ, আলোকসজ্জা, বিদ্যুতায়ন, পয়:নিষ্কাশন ও পানি সরবরাহ সহকারে উক্ত প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হলে কক্সবাজারের ঐতিহ্য রক্ষাসহ পযটকবান্ধব পরিবেশ গড়ে উঠতে সহায়ক হবে বলে তিনি জানান।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উম প্রকাশ নন্দী, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী, গণপূর্ত সার্কেল-২, চট্টগ্রাম; ড. আবদুর রহিম, উপসচিব, অর্থ মন্ত্রণালয়; নাহিদ মঞ্জুরা আফরোজ, উপ-প্রধান, ভৌত অবকাঠামো বিভাগ, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়; মশিউর রহমান, উপপরিচালক, আইএমইডি; জহির উদ্দিন আহমদ, নির্বাহী প্রকৌশলী, কক্সবাজার গণপূর্ত বিভাগ, মো: জাহাঙ্গীর আলি, উপনগর পরিকল্পনাবিদ কউক, এস এম এ জাহিদ অপু, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, কক্সবাজার গণপূর্ত বিভাগ; এ.এ. নিজাম, প্রকল্প পরিচালক এনডিই এবং ৩টি পুকুরের কার্যাদেশপ্রাপ্ত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি এবং কনসালটেন্ট।

Share this post

PinIt
scroll to top