izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করলেন জাতিসংঘের গনহত্যা প্রতিরোধ বিষয়ক বিশেষ দূত আদামা দিয়েং

FB_IMG_1553602745699.jpg

শহিদুল ইসলাম,উখিয়া(২৬ মার্চ) :: কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন জাতিসংঘের অান্ডার সেত্রুেটারী জেনারেল  অব স্পেশাল এডভাইজার  অন প্রিভেনশন অব জেনো সাইড মি.অাদামা দিয়েং।

মঙ্গলবার বিকালে  পরিদর্শন করেন।এসময় একাধিক নির্যাতিত  রোহিঙ্গা নারীর সাথে কথা বলেন।

রোহিঙ্গা নারীরা বলেছেন মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর সদস্যরা একাধিক নারীদের গনর্ধষন করেন। তারা বেশিরভাগ নারী অবিবাহিত। ধর্ষনের পর হত্যা করা হয়। উখিয়ার কুতুপালং শরনার্থী ক্যাম্প ইনচার্জের কার্যালযে ঘন্টা ব্যাপী স্হানীয় গ্রামবাসীর সাথে অাদামা দিয়েং এক বৈঠকে মিলিত হয়।

এসময় স্হানীয়রা বলেছেন রোহিঙ্গা অাসার কারনে এখানকার রাস্তাঘাট,শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,সামাজিক বনায়ন, কৃষি জমির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এগুলোর ক্ষতি পূরন দেওয়ার দাবী করেন। রাজাপালং ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য অালহাজ্ব বখতিয়ার অাহমদ এলাকার অবকাঠামোগত উন্নয়ন রোহিঙ্গা ও গ্রামবাসীর মধ্যে সহাবস্থান নিশ্চিত করতে হবে।

এসময় সাথে ছিলেন অাওয়ামী লীগ নেতা নুরুল হক খান,মাষ্টার রতন বড়ুয়া,সাংবাদিক নুরুল অামিন ছিদ্দিক,মানবাধিকার নেতা নুর মোহাম্মদ সিকদার।তিন দিনের সফরে কক্সবাজারের অাসেন জাতিসংঘের গনহত্যা প্রতিরোধ বিষয়ক বিশেষ দূত (উপদেষ্টা)। গত সোমবার কক্সবাজারে অাসেন।

এসময় শুভেচ্ছা জানাতে বিমানবন্দরে যান  কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্হিত ছিলেন,কক্সবাজার জেলা পুলিশ সুপার এবি এম মাসুম হোসেন,ইউ এন এইসসি অার  কক্সবাজার সাব অফিসের কর্মকর্তা ইফতেখার উদ্দিন বায়েজিদ। কক্সবাজার অবস্হান কালে শরনার্থী ও প্রত্যাবাসন কমিশনার ও উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত জাতিসংঘের অফিস গুলোর কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করেন।

২৭ মার্চ বুধ বার  তিনি কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের সাথে বৈঠক করে বিমানযোগে একই দিন ঢাকার উদ্দ্যেশে কক্সবাজার ত্যাগ করবেন। ক্যাম্প পরিদর্শন কালে সাথে ছিলেন কক্সবাজার রোহিঙ্গা ত্রান ও পুর্নবাসন কর্মকর্তা অাবুল কালাম অাজাদ,কুতুপালং শরনার্থী ক্যাম্পের ইনচার্জ রেজাউল করিম,ইউএন এইচ সি অার কর্মকর্তা ইফতেখার উদ্দিন বায়েজিদ।সন্ধ্যা ছয় টার দিকে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প ত্যাগ করেন।

একটি সুত্র জানিয়েছেন,জাতিসংঘের গনহত্যা বিষয়ক প্রধান অাদামা দিয়েং এ সরেজমিনে পরিদর্শন প্রতিবেদনের উপর অনেকটা নির্ভর করবে মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের উপর গনহত্যা হয়েছে কিনা।

Share this post

PinIt
scroll to top