buy Instagram followers
kayseri escort samsun escort afyon escort manisa escort mersin escort denizli escort kibris escort rize escort sinop escort usak escort trabzon escort

মহাকাশে মিসাইল দিয়ে স্যাটেলাইট ধ্বংস করে বিরাট সাফল্য ভারতের

space.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(২৭ মার্চ) :: মহাকাশে মহাশক্তিধর হল ভারত। দেশের উপর নজরদারি করছে এমন স্যাটেলাইট ধ্বংস করার ক্ষমতা চলে এল ভারতের হাতে।। বুধবার  সকালেই এই সাফল্যের তকমা আসে ভারতের হাতে। মাত্র তিন মিনিটে সেই স্যাটেলাইট ধ্বংস করা হয়েছে। এদিন দেশের এই সাফল্যে ভারতের বিজ্ঞানীদের শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী।

এই সাফল্যের মাধ্যমে বিশ্বের প্রথম সারির কয়েকটি দেশের পাশে নাম উঠল ভারতের। এতদিন পর্যন্ত এই ক্ষমতা কেবলমাত্র আমেরিকা, রাশিয়া ও চিনের হাতে ছিল। ভারত বিশ্বের চতুর্থ দেশ, যারা এই সাফল্যের অধিকারী হল।

ভারতের এই প্রজেক্টের নাম ছিল ‘মিশন শক্তি’। তিন মিনিটেই সফল হয় সেই মিশন। ৩০০ কিলোমিটার দূরে থাকা স্যাটেলাইট ধ্বংস করেছে ভারত।

জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছেন, এই অভিযানে কোনও আন্তর্জাতিক চুক্তি লঙ্ঘন করা হয়নি। এতে কোনও দেশের কোনও ক্ষতি করা ভারতের উদ্দেশ্য নয় বলে জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী।

আলোচনা শুরু হয়েছে মিশন শক্তি নিয়ে। অ্যান্টি স্যাটেলাইন ক্ষেপণাস্ত্র এ-স্যাট দিয়ে কীভাবে উপগ্রহ ধ্বংস করা যাবে, সেই প্রশ্নই এখন জানতে চাইছে সকলে।এই প্রেক্ষিতেই একটি ভিডিয়ো সামনে এসেছে। ভিডিয়োটি সামনে এনেছে সংবাদসংস্থা এএনআই। গ্রাফিক্যাল প্রেজেন্টেশন দিয়ে ওই সংবাদসংস্থা দেখিয়েছে কীভাবে ভারতের ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করবে স্পাই-স্যাটেলাইট।

কী এই এ-স্যাট ক্ষেপণাস্ত্র ?

মহাকাশে শত্রু উপগ্রহের মোকাবিলায় কাজ করে এই এ-স্যাট বা অ্যান্টি স্যাটেলাইট ক্ষেপণাস্ত্র। কোনও উপগ্রহের কক্ষপথে গিয়ে তাকে ধ্বংস করতে সক্ষম এই মিসাইল। প্রধাণত সামরিক ক্ষেত্রেই এর ব্যবহার হয়ে থাকে। এখনও পর্যন্ত দুনিয়ায় অন্য কোনও ক্ষেত্রে এই ক্ষেপণাস্ত্রের ব্যবহার হয়নি। তবে কখনও যুদ্ধের প্রয়োজনে শত্রুপক্ষের যোগাযোগ উপগ্রহ এই ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে ধ্বংস করা সম্ভব। এতে বিপক্ষের সব স্বয়ংক্রিয় পরিকাঠামো অকোজ হয়ে পড়ে। ২০১০ সালেই এই ধরণের একটি ক্ষেপণাস্ত্রের কথা জানায় ডিআরডিও।

২০০৭ সালে এই ধরনের এ-স্যাট মিসাইলের পরীক্ষা করে চিন(এসসি ১৯ এ-স্যাট)। ২০০৮ সালে ৩ এবিএম উপগ্রহ বিধ্বংসী মিসাইল পরীক্ষা করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ২০১৫ সালে পিএল ১৯ নুডোল-এর সফল পরীক্ষা করে রাশিয়া। ২০১৬ সালে ফের এর সফল পরীক্ষা চালায় রাশিয়া। পাল্লা ছিল ৮০০ কিলোমিটার।

বুধবার ভারত পরিচালনা করে ‘মিশন শক্তি’। মাত্র ৩ মিনিটেই একটি লো অরবিট স্যাটেলাইটকে ধ্বংস করে ভারতের অ্যান্টি স্যাটেলাইট ক্ষেপণাস্ত্র। ওই সাফল্যের কথা ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, ভারতের জন্য এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ সাফল্য। এখনও থেকে আমরা শুধু জলে, স্থলে, আকাশেই নয়, মহাকাশেও নিজেদের রক্ষা করতে সক্ষম।

Share this post

PinIt
izmir escort bursa escort Escort Bayan
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri