টেকনাফের নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে অপহৃত শিশু মুক্তিপণে উদ্ধার

Teknaf-Pic-A-02-03-19.jpg

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(২ এপ্রিল) :: টেকনাফে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্প হতে অপহরণের শিকার হওয়া কমিটি ইয়াছিনের সাড়ে ৪বছরের শিশু পুত্রকে ৫লাখ টাকা মুক্তিপণ দিয়ে সপ্তাহ পর ফিরে পেয়েছে স্বজনেরা।

জানা যায়, ২এপ্রিল সকাল হতে অপহৃত ছেলের পিতা ইয়াছিন, মা আজমিরা প্রকাশ কইতরীসহ স্বজনেরা টাকা নিয়ে হ্নীলা ষ্টেশনে অবস্থান নেয়। একমাত্র ছেলের প্রাণ রক্ষার্থে বিষয়টি কাউকে বুঝতে দেয়নি। সাড়ে ১১টায় উপজেলার হ্নীলা বাসষ্টেশন হতে অপহরণকারী চক্রের এক সদস্য নগদ ৫লক্ষ টাকা মুক্তিপণ নিয়ে বিকালে একটি মুঠোফোন থেকে কল করে জানায় তোমার ছেলে সিএনজিতে করে আসছে বুঝে নিও বলে ফোন বন্ধ করে দেন।

বিকাল সাড়ে ৩টায় অপহৃত শিশু বহনকারী সিএনজি (কক্সবাজার-থ-১১-৬০৪১) যোগে হ্নীলা ষ্টেশনে পৌঁছলে অপহৃত শিশু মোঃ কাউছার উদ্ধারের খবর ছড়িয়ে পড়ে। তখন উপস্থিত লোকজন জড়ো হয়ে সিএনজিসহ চালক রামু আজিজুল উলুম মাদ্রাসা সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা আব্দুস সোবহানের পুত্র জয়নাল আবেদীনকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। ফিরে আসা শিশু কাউছার জানান,জনৈক লালু আব্বুর বন্ধু এবং পার্শ্ববর্তী রফিক তাকে নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে নয়াপাড়া ক্যাম্প পুলিশের পরিদর্শক আব্দুস সালামের নেতৃত্বে একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রকৃত ঘটনার রহস্য বের করার জন্য চালক, বহনকারী সিএনজি, চালক ও ভিকটিমকে ক্যাম্পে নিয়ে যায়। তিনি আরো জানান, এই ব্যাপারে আইনী পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য তাদের টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৭মার্চ দুপুর আড়াই টারদিকে প্রতিদিনের ন্যায় পার্শ্ববর্তী ছেলেদের সাথে খেলতে গিয়েই নিখোঁজ হয়ে যান নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পের এইচ ব্লকের ৬শ ২৬নং শেডের ১০নং রোমের বাসিন্দা মোঃ ইয়াছিন প্রকাশ কমিটি ইয়াছিনের পুত্র মোঃ কাউছার (৪বছর ৬মাস) হঠাৎ নিখোঁজ হয়ে যায়।

বিষয়টি বিভিন্ন সংস্থাকে অবহিত করার পর হৈ ছৈ পড়ে যায়। ইয়াছিনের নিকট রোহিঙ্গাদের জন্য বিদেশী হতে আনা টাকা থাকায় অপহরণকারী চক্র ছেলেকে অপহরণ করে মোটাংকের টাকা হাতিয়ে নেয়।

এলাকার সুশীল সমাজ,এই ঘটনায় ক্যাম্প পার্শ্ববর্তী লোকজন সম্পৃক্ত হয়ে টাকার জন্য এই জাতীয় ঘটনার আশ্রয় নিয়েছে বলে মনে করেন।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri