মুরগির ছানার প্রাণ বাঁচাতে মানবিকতা, পুরস্কৃত হলো সেই শিশু ডেরেক

derek-mizoram.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৫ এপ্রিল) :: প্রতিবেশীর মরগির ছানাকে সাইকেল চালাতে গিয়ে ধাক্কা দিয়ে ফেলেছিল। তাই দেরি না করে আহত মুরগির ছানাটিকে নিয়ে সটান হাসপাতালে পৌঁছে যায় মিজোরামের একটি শিশু। দশ টাকার বিনিময়ে মুরগির প্রাণ বাঁচানোর আর্জিও জানায়।

একরত্তি ওই শিশুর মানবিকতা দেখে চমকে গিয়েছিল গোটা দেশ। রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় তার কাহিনি। ২৪ ঘণ্টা ঘুরতে না ঘুরতেই জানা গেল, মানবিকতার সেই স্বীকৃতিও পেয়েছে সে।

মিজোরামের সাইরাংয়ের বাসিন্দা ডেরেক সি লালছানহিমাকে পুরস্কৃত করল তার স্কুল। তাকে দেওয়া হয়েছে একটি শংসাপত্র। যাতে লেখা ‘ওয়ার্ড অফ অ্যাপ্রিশিয়েসন’। ওই শংসাপত্র নিয়ে ডেরেকের ছবি বৃহস্পতিবার আবারও ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়।

পথ দুর্ঘটনা তো হামেশাই ঘটে রাস্তাঘাটে। আমরা অনেকেই অযথা ঝামেলা এড়াতে দেখেও না দেখার ভান করে চলে যাই। এমনকী, যিনি ধাক্কা দিয়েছেন, সেই গাড়ি বা বাইক চালকও ভয়ে পালিয়ে যান।

অমানবিকতার এই রকম হাজারো উদাহরণের মধ্যে ডেরেক বুধবার সকলের কাছে হাজির হয়েছিল টাটকা বাতাসের মতো। তাঁর শিশুমনের পবিত্রতা নিয়ে সকলেই প্রশংসা করেছিল। তার পুরস্কারও পেল সে।

কিন্তু মুরগির ছানাটিকে সে বাঁচাতে পারেনি। কারণ, তার সাইকেলের চাকায় পিষ্ট হয়েই মুরগির ছানাটির প্রাণ যায়। তা সত্ত্বেও তার এই উদ্যোগ অবশ্যেই শিক্ষা দিল সকলকে।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri