স্ত্রী কোপাল স্বামীকে

Naikhongchari-Pic-28.jpg

আব্দুল হামিদ,নাইক্ষ্যংছড়ি(২৮ এপ্রিল) :: ভালবেসে বিয়ে মাত্র ১০ মাস হয়েছে। এর মাঝে স্ত্রী আট মাসের অন্তসত্তা। এ অবস্থায় স্বামীর নিয়মিত মারধর সহ্য করতে না পেরে স্ত্রী রোজিনা বেগম (২০) ধারালো দা দিয়ে কুপিয়েছে স্বামী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন (২৩) কে। ঘটনাটি ঘটেছে

রবিবার (২৮ এপ্রিল) সকাল সাড়ে দশটায় রামু উপজেলার গর্জনীয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড দক্ষিন বড়বিল গ্রামে।

জানা যায়, বিগত ১০ মাস পূর্বে বড়বিলের বাসিন্দা আবুল কাশেমের মেয়ে রোজিনা বেগমকে ভালবেসে বিয়ে করে একই এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন।

স্ত্রী রোজিনা বেগম অভিযোগ করে বলেন- তার স্বামী বিয়ের পর থেকে শারিরীক নির্যাতন করত। স্বামীর সংসারে শত নির্যাতন সহ্য করেও বসবাস করছি একটু সুখের আশায়। বর্তমানে তিনি ৮ মাসের অন্তসত্তা। এ অবস্থায় স্বামী ভারী কাজ করতে চাপ প্রয়োগ করায় তিনি অনাগত সন্তানের দিকে থাকিয়ে ভারী কাজ করা থেকে বিরত থাকতেন। এটি তার স্বামী বুঝার চেষ্টা করত না। এ থেকেই কথা কাটাকাটি, তারপর মারধর। সহ্য করতে না পেরে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়েছে স্ত্রী রোজিনা বেগম।

তবে স্বামী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন স্ত্রীর অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন- ভালবেসে বিয়ের পর থেকে তার স্ত্রীকে কখনও সে নির্যাতন করেনি। তবে রবিবার সকালে কাপড়-চোপড় ধোতে বলি। সে পারবে না বললে আমি তাকে থাপ্পড় দিই। এতেই সে আমাকে দা দিয়ে কুপিয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন- বিয়ের পর তাদের উভয়ের কয়েকটি ঘটনা স্থানীয় ভাবে মিমাংসা হয়েছে। কামাল তার স্ত্রীকে মারধর করত এটাও সত্য। সহ্য করতে না পেরে স্ত্রী রোজিনা বেগম স্বামী কামাল উদ্দিনকে কুপিয়েছে। কামাল বর্তমানে পাশবর্র্তী বাইশারী বাজারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে। তার মাথার তিন স্থানে কোপানোর দাগ রয়েছে।

গর্জনীয়া পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক নুরুল আবছার বলেন- স্থানীয় ইউপি সদস্যের কাছ থেকে ঘটনাটি শুনেছি। তবে ঘটনার বিষয়ে এখনো কোন পক্ষ অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri