izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

কুতুবদিয়ায় স্কুল ছাত্রীকে এসিড নিক্ষেপের অভিযোগ

22-5.jpg

নজরুল ইসলাম,কুতুবদিয়া(২২ মে) :: কুতুবদিয়ায় এক স্কুল ছাত্রীকে এসিড জাতীয় দ্রব্য নিক্ষেপের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, ২২মে (বুধবার) বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে বড়ঘোপ রুমাই পাড়া গ্রামের আনোয়ার হোছাইন মাঝির নবম শ্রেণি পড়–য়া মেয়ে সিজরাতুল জান্নাত মুক্তা (১৫) প্রতিদিনেরমত স্থানীয় মাষ্টার তালেব উল্লাহ স্কুলের শিক্ষক আমিরুল ইসলামের কাছ থেকে প্রাইভেট শেষে বাড়ি ফেরার পথে একই ইউনিয়নের মাতবর পাড়া মসজিদের পূর্বপাশে উৎপেতে থাকা পারভেজ আলম নামের এক ছাত্র মেয়েটিকে লক্ষ্য করে এসিড জাতীয় বস্তু ছুড়ে মেরে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়।

এতে ঐ ছাত্রীর পরিধেয় কাপড়-চোপড় ঝলসে যায়।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, আহত মেয়েটিকে সাড়ে সন্ধ্যা সাতটার দিকে কুতুবদিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তাকে প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

এ ব্যাপারে মুক্তার বাবা আনোয়ার হোছাইন মাঝির সাথে কথা হলে তিনি বলেন, কিছুদিন ধরে পার্শ্ববতী মাতবর পাড়া গ্রামের জনৈক আক্কাস উদ্দিনের ৮ম শ্রেণি পড়–য়া কুতুবদিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র মতিউর রহমান প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে উত্যক্ত করে আসছিল। মুক্তা প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় এসিড মারিয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এ ব্যাপারে আবাসিক মেডিকেল অফিসার রেজাউল হাসান ও কর্তব্যরত চিকিৎসক মোজাম্মেল হক জানান, রোগীর গায়ে এসিড জাতীয় দ্রব্য নিক্ষেপের তেমন কোন আলামত পাওয়া যায়নি। রোগীকে প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে তারা জানান, এসিড নিক্ষেপের বিষয়টি পরীক্ষা-নীরিক্ষার মাধ্যমে জানা যাবে।

এ ব্যাপারে কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দিদারুল ফেরদাউস বলেন, বিষয়টি শুনার সাথে সাথে তিনি ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছেন। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ফেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান তিনি।

ঘটনার বিষয়ে জানতে মতিউর রহমানের বাবা আক্কাস উদ্দিনের সাথে কথা বলতে তার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারে একাধিকবার চেষ্টা করেও সংযোগ না পাওয়ায় তার বক্তব্য দেয়া সম্ভব হয়নি।

এদিকে ঘটনাটি এলাকায় প্রচার হয়ে পড়লে ঐ ছাত্রীকে একনজর দেখতে কুতুবদিয়া হাসপাতালে জনতার ভিড় জমে যায়।

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri