ঈদগাঁওতে ভোটার হাল নাগাদ রেজিষ্ট্রেশনে অনিয়ম : শিক্ষার্থী লাঞ্ছিত

aniom-durniti.jpg

মো: রেজাউল করিম,ঈদগাঁও(২৬ মে) :: ককসবাজার সদরের ঈদগাঁওতে ভোটার হাল নাগাদ অনলাইন রেজিষ্ট্রেশন ও ছবি তোলার দিনে ব্যাপক অনিয়ম দুর্নীতি ও শিক্ষার্থীকে লাঞ্চিত করার গুরুতর অভিযোগ উঠেছে।

২৬ মে সকাল ১১টার দিকে ঈদগাও আদর্শ উচ্চ বিদ্যালযে এ ঘটনা ঘটে।

প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, ২৬ মে ঈদগাঁও ইউনিয়নের ভোটার হাল নাগাদের অনলাইন রেজিষ্ট্রেশন ও ছবি তোলার দিন ছিল।দায়িত্বে থাকা নাঈম উদ্দিন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের লাইনে দাড়িয়ে রেখে অন্য লোকদের অনৈতিক সুবিধা নিয়ে রেজিষ্ট্রেশন ছবি তোলার রুমে পাঠিয়ে দেয়।এতে শিক্ষার্থীদের সাথে তাদের বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীতে লাঞ্চিত করে নির্বাচন অফিসের কর্মকর্তা দাবীদার নাঈম উদ্দিন।

অন্যদিকে অাবেদন ফরম যাচাই বাচাইয়ের পর ২৬ মে ছবি ও রেজিষ্ট্রেশনের দিন নির্ধারন করছে সংশ্লিষ্টরা। এর পর ও এ নাইম উদ্দিন আবেদনকারীদের হাত থেকে ফরম নিয়ে ফেলে ফরমে ভুল হয়ছে ও বিভিন্ন সমস্যার কথা বলে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ও অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।

এ ব্যাপারে লাঞ্চিত শিক্ষার্থী সাজ্জাদ ও তার বাবা আবুল হাসেম জানান,সাজ্জাদ অত্র স্কুলের দশম শ্রেনীর ছাত্র, তার বাব কোচিং থেকে নিয়ে এসে লাইনে দাড় করিয়ে। এরা অনিয়ম দেখে প্রতিবাদ করলে তাদের লাঞ্চিত করে এবং তাড়িয়ে দেয়।ঈদগাও দক্ষিন মাইজ পাড়া এলাকার এক প্রবাসী ভোটার আবেদনকারীর ফরম নিয়ে ফেলে দ্বিতীয় তলায় নিয়ে গিয়ে তার ফরমে ভুল অাছে ঠিক করতে হবে অন্যথায় ভোটার হওয়া যাবে না বলে ১ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় বলে জানান।

এ দিকে ইউনিয়নের জাগির পাড়া এলার আবেদনকারীর বড় বোন রুমেনা আক্তার জানান,লাইনে দাড়ানো থেকে তাদের পেছনের এক সহিলাকে ছবি তোলার জন্য নিয়ে গেলে রুমেনাসহ অনেকে প্রতিবাদ করে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক ছাত্রলীগ নেতা জানান,তার সাথে ও অশালীন অাচরন করেন এ নাঈম উদ্দিন। অভিযোগ ঊঠা নাঈম উদ্দিনের সাথে এ সব বিষয়ে জানতে সে তার পরিচচয় গোপন করার চেষ্টা করে এবং অভিযোগ অস্বীকার করে কিন্তু পরে সরকার দলীয় এক নেতা দিয়ে এ সব ধামাচাপা দেয়ার চেষ্ষ্টা করে।

এমকি এ নেতা দিয়ে সাংবাদিকদের ফোন ও করায়।সচেতন মহল নির্বাচন কমিশনের ভাবমর্তিক্ষুন্নকারী দুর্নীতিবাজ নাঈন উদ্দিনের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানান।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri