মহেশখালীর হোয়ানকে ইয়াবা ব্যবসায় বাধা দেওয়ায় মারধরের অভিযোগ

hamla-1-in-3.jpg

এম রমজান আলী,মহেশখালী(২৫ জুন) :: মহেশখালীর হোয়ানকের ফকিরখালী পাড়ায় ইয়াবা ব্যবসায় বাধা দেওয়ায় এক নিরহ পরিবারের উপর হামলা ও মারধরের অভিযোগ উঠেছে।

হামলার শিকার লোকজন মহেশখালী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

হোয়ানক ফকিরখালী পাড়ার মৃত ছালামত উল্লাহার পুত্র হাজ্বী জালাল আহমদ মহেশখালী থানায় দায়েরকৃত এক লিখিত অভিযোগ সূত্রে দাবী করেন স্থানীয় আবু কায়ছার, মোঃ মহিম ও খুকি ফকিরখালী পাড়াগ্রামে ইয়াবা সহ বিভিন্ন মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছে।

একারনে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা পড়–য়া ছাত্ররা দিন দিন মাদকাসক্তে পরিনত হচ্ছে। কোন কোন স্কুল পড়–য়া ছেলেরা গভীর রাত পর্যন্ত বিভিন্ন আস্তানায় মাদকাসক্ত হয়ে আড্ডা জমায়। ফলে এলাকায় চুরি, ডাকাতি, চিন্তাই, নানা অপরাধমূলক কার্মকান্ড বেড়েই যাচ্ছে।

একারনে হাজ্বী জালাল আহামদ এর পরিবার একাধিকবার আবু কায়ছারের পিতা আব্দু শুক্কুর ও আবু কায়ছারকে মরণ নেশা ইয়াবা ব্যবসা থেকে বিরত থাকতে বারণ করেন।

একারনে ২০ জুন দুপুর ১২ টায় পূর্ব পরিকল্পনা মতে লোহার রড়, দা, লাঠিসোটা ইত্যাদি নিয়ে হাজ্বী জালাল আহামদের ঘেরা, বেড়া ও ঠেংরা ভাংচুর করে এবং বাড়ীর লোহার দরজা কোপিয়ে ছিদ্র করে দেন।

স্কুল পড়–য়া ছেলেদের মারধর করে। পরে আবু কায়ছারগং এ বিষয়ে থানায় বা কোথাও বিচার প্রার্থী হইলে পরবর্তীতে খুন জখম করিবে মর্মে হুমকি দেয়। এতে নিরুপায় হয়ে জালাল আহমদ বাদী হয়ে মহেশখালী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri