কুতুবদিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় কলেজ ছাত্রীসহ আহত-২

9-7.jpg

এম নজরুল ইসলাম,কুতুবদিয়া(৯ জুলাই) :: কুতুবদিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় কলেজ ছাত্রীসহ দুই জন গুরুতর আহত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সকাল নয়টার দিকে বড়ঘোপের মুরালিয়া গ্রামে বসত ভিটে দখলকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের কুতুবদিয়া সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন, উপজেলার বড়ঘোপ ইউনিয়নের মুরালিয়া গ্রামের বখতেয়ার হোছাইনের কলেজ পড়–য়া মেয়ে সুমাইয়া (১৭) ও স্ত্রী কহিনুর আকতার (৩৫)।

আহত কহিনুর আকতার জানান, মুরালিয়া এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ইউনুচের নেতৃত্বে ১০/১২ জনের একদল সন্ত্রাসী সকাল ৯টার দিকে অবৈধভবে বসত ভিটায় প্রবেশ করে জবর-দখলের চেষ্টা করলে মেয়ে সুমাইয়া সন্ত্রাসীদের বাঁধা প্রদান করে।

এসময় সন্ত্রাসীরা সুমাইয়াকে মারধর করলে কহিনুর আকতার মেয়েকে উদ্ধার করার জন্য দৌঁড়ে যায়। সন্ত্রাসীরা কহিনুর আকতারকেও এলোপাতাড়ি মারধর করে গুরুতর আহত করে।

এসময় তারা চিৎকার করলে সন্ত্রাসীরা বসত ভিটে ছেড়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে ঘটনাস্থল থেকে এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে কুতুবদিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

বিষয়টি নিয়ে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানাযায়, বখতেয়ার হোছাইনের ভোগ-দখলীয় বসত ভিটা নিয়ে বিগত কয়েক বছর ধরে দ্বন্দ্ব চলে আসছে ইউনুচের। এর পূর্বেও কয়েকবার ওই বসত ভিটা জবর-দখলের চেষ্টা করেছিল সন্ত্রাসীরা। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় মিশ্রপ্রতিক্রিয়া চলছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri