ইংলিশ লিগেও যুক্ত হচ্ছে VAR পদ্ধতি

var-EPL.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(১৭ জুলাই) :: ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের আগামী মৌসুমে প্রথমবারের মতো ব্যবহৃত হতে যাচ্ছে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি বা ভিএআর পদ্ধতি। ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপ কিংবা কোপা আমেরিকার মতো বড় আসরে ভিএআর থাকলেও ইপিএলে কখনোই ব্যবহৃত হয়নি এই প্রযুক্তি। তবে এই প্রযুক্তি ব্যবহারে ম্যাচের গতি বাধাগ্রস্ত হবে না বলে জানিয়েছেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী রিচার্ড মাস্টার্স। ভিএআর ব্যবহারে ফিফার সব নিয়ম মানা হলেও, পেনাল্টি নিরীক্ষণ প্রক্রিয়াটি মানার ব্যাপারে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

ক্রিকেট ম্যাচে টিভি আম্পায়ারিংয়ের সূচনাটা ১৯৯২ সালে। মাঝে পেরিয়েছে ২৬ বছর। আর ২০১৮’তে এসে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা ফুটবলে লেগেছে প্রযুক্তির হাওয়া। নাম ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি সংক্ষেপে ভিএআর।

রাশিয়া বিশ্বকাপ, ফ্রান্সে সদ্য সমাপ্ত নারী ফুটবল বিশ্বকাপ আর সবশেষ ব্রাজিলের কোপা আমেরিকা; বৈশ্বিক সব টুর্নামেন্টে ব্যবহৃত হয়েছে ভিএআর। তবে পেশাদার ফুটবল লিগের আইকন ইপিএলে ২০১৯/২০ মৌসুমে প্রথমবারের মতো ব্যবহার করা হবে এই প্রযুক্তি। জানালেন প্রিমিয়ার লিগের প্রধান নির্বাহী রিচার্ড মাস্টার্স।

তিনি বলেন, ‘প্রিমিয়ার লিগে গেলো মৌসুমে আমরা ভিএআর ব্যবহার করিনি। কেননা এই প্রযুক্তিতে দক্ষ যথেষ্ট পরিমাণ রেফারি আমাদের ছিলো না। আপনারা জানেন, শনিবার রাতে একসাথে অনেকগুলো ম্যাচ থাকে লিগে। সুতরাং আমরা পর্যাপ্ত ম্যাচ অফিসিয়ালদের ট্রেনিং করিয়েছি। এই মৌসুমে আমরা প্রথমবারের মতো ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারিদের ব্যবহার করতে যাচ্ছি।’

অন্য অনেক খেলা থেকে ফুটবল এগিয়ে, নৈপূণ্যতার পাশাপাশি বড় একটি কারণ এর গতি। আর গতির প্রশ্নে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ সন্দেহাতীতভাবে বিশ্বসেরা। প্রযুক্তির ব্যবহারে কি কিছুটা ভাটা পড়বে সে গতিময় ফুটবলে?

রিচার্ড মাস্টার্স বলেন, দেখুন, বিষয়টা নির্ভর করে মাঠের রেফারি আর ভিএআরের যোগাযোগের ওপর। এ নিয়ে ফিফার নির্দিষ্ট নিয়মাবলীও আছে। সেটা মেনে চলবো আমরা। তবে এতে খেলার উত্তেজনায় কোনো ঘাটতি হবে না, এতোটুকু আশ্বস্ত করতে পারি।

সম্প্রতি নারী বিশ্বকাপে পেনাল্টিতে ভিএআর ব্যবহার নিয়ে তৈরি হয়েছিলো সমালোচনা। ফিফা প্রদত্ত ভিএআরের সকল নিয়ম মানলেও তাই পেনাল্টির সময় গোলরক্ষকের অবস্থান নির্ধারণের ব্যাপারে এখনও সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়নি।

রিচার্ড মাস্টার্স বলেন, দর্শক যেমন নির্ভুল রেফারিং দেখতে চান, তেমনি ম্যাচের উত্তেজনা অক্ষুণ্ণ থাকুক, সেটাও চান। পেনাল্টিতে ভিএআর নিয়ে বিতর্ক আছে। এ ব্যাপারে রেফারিদের সাথে আলোচনা এখনও বাকি আছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
alsancak escort bornova escort gaziemir escort izmir escort buca escort karsiyaka escort cesme escort ucyol escort gaziemir escort mavisehir escort buca escort izmir escort alsancak escort manisa escort buca escort buca escort bornova escort gaziemir escort alsancak escort karsiyaka escort bornova escort gaziemir escort buca escort porno