কক্সবাজারের স্থানীয় জনগণের স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে ১৩০ কোটি টাকা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

hm.jpg

বিশেষ প্রতিবেদক(২২ জুলাই) :: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী জাহেদ মালেক বলেছেন: রোহিঙ্গাদের কারণে কক্সবাজারের স্থানীয় জনগণের স্বাস্থ্য সেবার যে অবনতি হয়েছে তা কাটিয়ে উঠতে দেড় শ’ মিলিয়ন ডলার (বাংলাদেশী মুদ্রায় ১৩০ কোটি টাকা) দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। এ অর্থ দিয়ে শুধু স্থানীয় জনগণের স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে ব্যয় করা হবে।

সোমবার কক্সবাজারের অভিজাত একটি হোটেলে স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ও বিশ্ব ব্যাংকের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক শেষে এ কথা বলেন তিনি।

স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন: রোহিঙ্গা আসার পরে উখিয়া-টেকনাফের স্থানীয় জনগণের যে ক্ষতি তা কাটিয়ে উঠছে সরকার। কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন হাসপাতাল ও সরকারী ক্লিনিকগুলোতে আরও জনবল বাড়াতে পদক্ষেপ নেয়া হবে। পর্যটন এলাকা হিসেবে পর্যটকদের স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নেও কাজ করা হবে।

তিনি বলেন: রোহিঙ্গা আসার পরে এইচআইভি যেভাবে মাথাচাড়া দিয়েছে তা প্রতিরোধে বিশেষ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। যাদের শরীরে এইচআইভি ধরা পড়েছে তাদের চিকিৎসার আওতায় আনা হয়েছে। এটা সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ার কোন আশঙ্কা নেই। কারণ রোহিঙ্গারা একটি জায়গায় সীমাবদ্ধ।

তিনি আরও বলেন: শুধু কক্সবাজার নয় সারাদেশের সাড়ে চার শ’ ক্লিনিকের উন্নয়নে কাজ কাজ চলছে। শিগগিরই এসব ক্লিনিকের সুবিধা ভোগ করবে জনগণ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ব ব্যাংকের প্রতিনিধি বুশরা আলম, স্বাস্থ্য বিভাগের চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক ডা: শামীম ওসমাণী, ডা: হাসান শাহরিয়া ও কক্সবাজারের সিভিল সার্জন ডা: আব্দুল মতিন।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri