মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সঙ্গে ব্যবসা নিষিদ্ধ করতে বিশ্ব নেতাদের প্রতি জাতিসংঘের আহ্বান

yakult.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৫ আগস্ট) :: মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সঙ্গে যেসব কোম্পানি ব্যবসা করছে তাদের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের জন্য বিশ্ব নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের তদন্তকারীরা। তারা বলছেন, যেসব বিদেশী প্রতিষ্ঠান সেখানে ব্যবসা করছে সেগুলো প্রকারান্তরে আন্তর্জাতিক অপরাধকেই সহায়তা করছে।

মানবাধিকার বিশেষজ্ঞদের নিয়ে গঠিত ওই প্যানেল মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সঙ্গে ব্যবসা করছে এমন কোম্পানিগুলোকে চিহ্নিত করেছে। বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও সেগুলোর সাবসিডিয়ারির মাধ্যমে দেশের সম্পদের বিশাল অংশ নিয়ন্ত্রণ করছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। এই বাহিনী রোহিঙ্গা সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে গণহত্যা চালিয়েছে বলে জাতিসংঘ অভিযোগ করেছে।

২০১৭ সালের আগস্টে রাখাইন রাজ্যে সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে জাতিগত শুদ্ধি অভিযান শুরু করলে সাড়ে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে চলে যায়। মিয়ানমার সেনাবাহিনী সেখানে ব্যাপক গণহত্যা, গণধর্ষণ, নির্বিচারে রোহিঙ্গ গ্রাম জ্বালিয়ে দেয়াসহ বিভিন্ন অপরাধ করেছে বলে মানবাধিকার সংগঠনগুলো প্রমাণ পেয়েছে।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নিয়মতান্ত্রিক এই নিধন অভিযানকে গণহত্যার পাঠ্যপুস্তকীয় উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করে জাতিসংঘ।

প্যানেলের চেয়ারম্যান মারজুকি দারুসম্যান ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় রোববার বলেন, এই প্রথম রিপোর্টে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সঙ্গে ব্যবসারত ইউরোপীয় ও এশীয় কোম্পানিগুলোর ব্যাপারে একটি পরিষ্কার চিত্র পাওয়া গেছে। আসল কথা হলো এই সমপর্ক জাতিসংঘ চুক্তি ও জাতিসংঘ রীতিগুলোর লঙ্ঘন।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri