ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড-এ ধুলায় গড়িয়েছিলেন শার্লিজ থ্রোন

mm.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৭ আগস্ট) :: ধুলো-কাদা একদমই পছন্দ নয় শার্লিজ থ্রোনের, কিন্তু ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড-এর জন্য সেসবের ধার ধারেননি এ অভিনেত্রী ইন্ডিওয়্যার সম্প্রতি ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোডকে এ দশকের নবম শ্রেষ্ঠ ছবি হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। এবং ফুরিয়োসার চরিত্রে শার্লিজ থ্রোনের অভিনয় দশকের সেরা পারফরম্যান্সের তালিকায় একাদশ স্থান দখল করে নেয়

ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড মুক্তি পেয়েছিল ২০১৫ সালে। সেই ছবি নিয়ে এতদিন পর ভক্তদের জন্য কৌতূহলোদ্দীপক একটি তথ্য প্রকাশ করেছে ইন্ডিওয়্যার। ছবির শুটিংয়ে শার্লিজ থ্রোনের উদ্বেগ ছিল কঠিন অ্যাকশন কোরিওগ্রাফি নিয়ে নয়, বরং হাতে ধুলো লাগা নিয়ে। রটেন টমেটোর সঙ্গে এক সাক্ষাত্কারে সম্প্রতি বিষয়টি প্রকাশ করেছেন ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড-এর লেখক-পরিচালক জর্জ মিলার।

মিলার শুটিং স্পটেই শার্লিজের জন্য সবসময় ধুলা পরিষ্কারের ব্যবস্থা রাখতে চেয়েছিলেন, কিন্তু অস্কার বিজয়ী অভিনেত্রী বিনয়ের সঙ্গে মিলারের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। মিলারের কথায়, ‘শার্লিজ মেকআপ ভ্যান থেকে বের হয়ে সোজা ধুলায় গড়াগড়ি দিতেন এবং শরীরে, নখের মধ্যে ধুলা লাগিয়ে নিতেন।’ অথচ এই শার্লিজের ধুলা নিয়ে সমস্যা আছে। শুটিং শুরুর আগে তিনি মিলারকে বলেছিলেন, ‘তোমাকে আমার কিছু বলার আছে। আমি হাতে ধুলা লাগা সহ্য করতে পারি না।’ এরপর মিলার তাকে তাত্ক্ষণিক পরিষ্কার করার ব্যবস্থা রাখার প্রস্তাব দিলে থ্রোন তা নাকচ করে দিয়ে বলেন, এসব কোনো কিছুই আমাকে সাহায্য করবে না।

ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড-এ ফুরিয়োসার চরিত্রের জন্য খুশিমনেই নিজের শরীরে ধুলোবালি লাগিয়েছিলেন থ্রোন। এমনকি নিজের মাথাও কামাতে হয়েছিল তাকে। ছবিতে যেকোনো অ্যাকশন দৃশ্য নিজেই করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ছিলেন থ্রোন। মিলারের কথায়, মনে হচ্ছিল পুরুষের কাজ করছেন একজন নারী।

ইন্ডিওয়্যার সম্প্রতি ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোডকে এ দশকের নবম শ্রেষ্ঠ ছবি হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। এবং ফুরিয়োসার চরিত্রে শার্লিজ থ্রোনের অভিনয় দশকের সেরা পারফরম্যান্সের তালিকায় একাদশ স্থান দখল করে নেয়। অন্যদিকে জর্জ মিলার সম্প্রতি জানিয়েছেন ম্যাড ম্যাক্স: ফিউরি রোড-এর সঙ্গে সম্পর্কিত তিনটি গল্প নিয়ে তারা কাজ করছেন।

 

সূত্র: ইন্ডিওয়্যার

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri