টেকনাফে যাত্রীবাহী বাস পুকুরে : আহত-১২

Teknaf-Pic-A-18-08-19.jpg

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(১৮ আগষ্ট) :: টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের চলন্ত একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পুকুরে পড়েছে। এতে ১২জন যাত্রী গুরুতর আহত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

১৮ আগষ্ট দুপুর পৌনে ১টারদিকে কক্সবাজারগামী একটি স্পেশাল বাস (কক্সাজার-জ-১১-০১৯৫) হ্নীলা চৌধুরীপাড়া পয়েন্টে পৌঁছলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গিয়ে পাশর্^বর্তী পুকুরে পড়ে যায়।

এতে বাসে থাকা রামুর মোঃ নবীর স্ত্রী নুর নাহার বেগম (৫০), হোয়াইক্যং চাকমারকূল শরণার্থী ক্যাম্পের মোহাম্মদ ইসহাকের স্ত্রী ধইল্যা বানু (৫২), তার মেয়ে মমতাজ বেগম (১৮), টেকনাফ কচুবনিয়ার সোনা আলীর মেয়ে লাইলা বেগম (২০), ডেইল পাড়ার মুহাম্মদ উল্লাহর মেয়ে মদিনা (১১), গুরা মিয়ার মেয়ে রেহেনা বেগম (৩৫), মৃত হাজী ছৈয়দ করিমের পুত্র আব্দুর রহিম প্রকাশ রফিক (৫০), স্ত্রী জাহেদা বেগম (৪৮), মেয়ে মনোয়ারা বেগম (১৬), ঈদগাঁও এলাকার মৃত নুরুল আজিজের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৫৫) সহ আরো অজ্ঞাতনামা ১৫/২০জন আহত হয়েছে।

স্থানীয় ক্যাম্পের টহলরত বিজিবি টহল দল ও জনসাধারণের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য লেদা আইএমও এবং হ্নীলা উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দূঘর্টনায় পতিত বাস ঘটনাস্থলে ছিল।

এতে অর্থলোভী মালিক এবং অদক্ষ ও রোহিঙ্গা চালকদের কারণে বিভিন্ন স্থানে সড়ক দূঘর্টনা লেগেই রয়েছে।

নয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশের আইসি এম মোরশেদ আলম চৌধুরী জানান, এই দূঘর্টনার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে রয়েছি। প্রত্যক্ষদর্শীদের জানামতে ১০/১৫জন আহত হয়েছে। গাড়িটি ঘটনাস্থলে রয়েছে। তদন্ত স্বাপেক্ষে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri